• সোমবার, ১৯ আগস্ট ২০১৯, ৪ ভাদ্র ১৪২৫
ads
সুইডেন-ইতালি যাচ্ছে চাঁপাইনবাবগঞ্জের আম

সংগৃহীত ছবি

আমদানি-রফতানি

সুইডেন-ইতালি যাচ্ছে চাঁপাইনবাবগঞ্জের আম

  • জাহিদ হাসান মাহমুদ মিমপা, চাঁপাইনবাবগঞ্জ
  • প্রকাশিত ১৯ জুন ২০১৯

চলতি মৌসুমে প্রথমবারের মতো বিদেশে রপ্তানি করা হলো চাঁপাইনবাবগঞ্জের সুমিষ্ট আম। সম্প্রতি শিবগঞ্জ থেকে দুই টন ক্ষিরসাপাত আম ইতালি ও সুইডেনে পাঠায় ঢাকার দুটি রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠান।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, দেশের বাইরে চাঁপাইনবাবগঞ্জের আমের ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। কিন্তু গুণগত আম উৎপাদন ও নানান জটিলতায় চাহিদা অনুযায়ী রপ্তানি করা সম্ভব হয় না। সরকারি পৃষ্ঠপোষকতা ও সার্বিক সহযোহিতা পেলে এক মৌসুমে আম রপ্তানি করে বিপুল পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা আয় করা সম্ভব। জেলার বাগান মালিক ইসমাঈল খান শামিম জানান, বিদেশে রপ্তানিযোগ্য আম উৎপাদনে কন্ট্রাক্ট ফার্মিংয়ের আওতায় উত্তম কৃষি পদ্ধতি অনুসরণ করে শিবগঞ্জ উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের তত্ত্বাবধানে আম উৎপাদন করা হয়েছে।

তিনি আরো জানান, ঢাকার ইসলাম এন্টারপ্রাইজ ও ফ্রেশ ফুড ট্রেডিং নামে দুটি রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠান বাগান থেকেই আম সংগ্রহ করে বিদেশে রপ্তানি করে থাকে। তার দাবি, সরকারিভাবে যদি বিদেশে আম রপ্তানি করা হয়, তবে আমের ন্যায্য মূল্য পাবে কৃষক। বিদেশে বাড়বে চাঁপাইনবাবগঞ্জের আমের চাহিদা।

আম রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠান ইসলাম এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারী জহিরুল ইসলাম বলেন, ‘ইউরোপসহ বিভিন্ন দেশে চাঁপাইনবাবগঞ্জের আমের ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। কিন্তু গুণগত আম উৎপাদন না হওয়া ও নানা জটিলতায় চাহিদা অনুযায়ী রপ্তানি করা সম্ভব হয় না। সরকারি পৃষ্ঠপোষকতা ও সার্বিক সহযোহিতা পেলে এক মৌসুমে আম রপ্তানি করে বিপুল পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা আয় করা সম্ভব।’

তিনি আরো বলেন, ‘বিদেশে সব সময় চাহিদা থাকে ফ্রেশ ও ফরমালিনমুক্ত আমের। সে অনুযায়ী কৃষকের বাগান থেকে আম সংগ্রহ করে রপ্তানি করা হয়।’

এ বিষয়ে জানতে চাইলে শিবগঞ্জ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা এসএম আমিনুজ্জামান বলেন, ‘বিদেশে আম রপ্তানির জন্য ১৭ জন চাষি বিশেষ উপায়ে আম উৎপাদন করেছেন। সবার আমগুলো রপ্তানির সুযোগ হলে লাভবান হবেন এখানকার আমচাষিরা।’

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads