• রবিবার, ২৬ মে ২০১৯, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫
ads
ক্যালিফোর্নিয়ার নাইটক্লাবে বন্দুকধারীর হামলা

ক্যালিফোর্নিয়ার বারে বন্দুকধারীর হামলা

ছবি : ইন্টারনেট

উত্তর আমেরিকা

পুলিশসহ নিহত ১২

ক্যালিফোর্নিয়ার নাইটক্লাবে বন্দুকধারীর হামলা

  • ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত ০৯ নভেম্বর ২০১৮

যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার একটি নাইটক্লাবে বন্দুকধারীর গুলিতে পুলিশের এক কর্মকর্তা ও হামলাকারীসহ কমপক্ষে ১২ জন নিহত হয়েছেন। স্থানীয় সময় বুধবার মাঝরাতের ওই ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো ১০ জন।

বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ওই দিন ক্যালিফোর্নিয়ার থাউজেন্ড ওক এলাকার বর্ডারলাইন বার অ্যান্ড গ্রিল নামের ক্লাবটিতে স্থানীয় কলেজ শিক্ষার্থীদের আয়োজনে একটি কাউন্টি মিউজিক অনুষ্ঠান চলছিল। সেখানে সব মিলিয়ে প্রায় ২০০ মানুষ সমবেত হয়েছিলেন।

পুলিশ বলছে, হামলাকারী কোন উদ্দেশ্য নিয়ে এ জঘন্য ঘটনা ঘটিয়েছে, তা বোঝা একটু জটিল হয়ে দাঁড়িয়েছে। কারণ এ সময় হামলাকারীও নিহত হয়েছে। তার মরদেহও উদ্ধার করা হয়েছে। ভেনচুরা কাউন্টি পুলিশের মুখপাত্র এরিক বাকশো বলেন, ঘটনাস্থলে পৌঁছেই তারা গুলির শব্দ শুনতে পান। হামলাকারী তখন এলোপাথাড়ি গুলি চালাচ্ছিল। তিনি জানান, এ সময় তারা ক্লাবটির ভেতরে প্রবেশের চেষ্টা করলে হামলাকারী তাদের ওপর গুলি চালাতে শুরু করে। এতে সার্জেন্ট রন হেলাসের গায়ে একাধিক গুলি লাগে। কয়েক ডজন গুলি চালানোর পরে হামলাকারী থেমে গেলে ক্লাবের ভেতরে গিয়ে তার মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। পুলিশের ধারণা, হামলাকারী শেষ দিকে এসে নিজের মাথায় গুলি চালিয়ে আত্মহত্যা করে থাকতে পারে।

এরিক বলেন, হামলার পরপরই সেখানে ভয়াবহ অবস্থার সৃষ্টি হয়। আতঙ্কে কেউ কেউ জানালা ভেঙে বাইরে বেরিয়ে আসে। কেউ কেউ শৌচাগারে গিয়ে আশ্রয় নেন।

এদিকে হামলার সময় ক্লাবে থাকা টেইলর হুইটলার নামের এক শিক্ষার্থী স্থানীয় কেটিএলএ চ্যানেলকে বলেন, আমি তখন ড্যান্সফ্লোরে ছিলাম। হঠাৎ করেই গুলির শব্দ শুনতে পাই। সঙ্গে সঙ্গেই কেউ একজন চিৎকার করে সবাইকে শুয়ে পড়তে বলেন। আমরা তাৎক্ষণিকভাবে শুয়ে পড়ি। টেইলরের মতে, সবাই শুয়ে না পড়লে হতাহতের সংখ্যা আরো অনেক বেশি হতে পারত।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads