• সোমবার, ২৪ জুন ২০১৯, ১০ আষাঢ় ১৪২৫
ads
তেলের লাইন বিস্ফোরণে নিহত ৬৬

মেক্সিকোতে পাইপ লাইন বিস্ফোরণে নিহত ৬৬

ছবি : ইন্টারনেট

উত্তর আমেরিকা

তেলের লাইন বিস্ফোরণে নিহত ৬৬

  • ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত ২০ জানুয়ারি ২০১৯

মেক্সিকোর হিদালগো রাজ্যে ফুটো হয়ে যাওয়া একটি তেলের পাইপলাইনে বিস্ফোরণে ৬৬ জন নিহত হয়েছে। অগ্নিদগ্ধ ৭১ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মৃতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে।   গত শুক্রবার রাতে রাজ্যটির লাউয়ালিলপান শহরের ‘তুলা’ তেল শোধনাগারের কাছে এ দুর্ঘটনা ঘটে। সন্দেহভাজন তেল চোররা লাইনটি ফুটো করে ফেলার পর বিস্ফোরণটি ঘটে বলে ধারণা করা হচ্ছে। বিবিসি, আলজাজিরা। কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ওই দিন সন্ধ্যায় বহু লোক পাইপের ফুটো দিয়ে পড়া তেলে কন্টেইনার ভরতে হুড়োহুড়ি করার একপর্যায়ে আগুন ধরে বিস্ফোরণ ঘটে। এতে আগুন পুরো এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে। স্থানীয় টেলিভিশনে বিশাল আগুনের শিখা ও মারাত্মকভাবে দগ্ধ লোকজনকে দেখা গেছে।

স্থানীয় সময় রাত শুক্রবার ১২টার সময় আগুন নিভিয়ে ফেলা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন মেক্সিকোর জননিরাপত্তামন্ত্রী আলফোনসো দুরাজো।

গতকাল শনিবার প্রথম প্রহরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট আন্দ্রেস মানুয়েল লোপেজ ওব্রাদর।

মেক্সিকোয় তেল চুরি ‘হুয়াচিকোলেও’ নামে পরিচিত এবং কিছু কিছু এলাকায় এটি বাধাহীনভাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে। হুয়াচিকোলেওর কারণে গত বছর দেশটির তিন বিলিয়ন ডলার ব্যয় হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির সরকার।

ডিসেম্বরে ক্ষমতা গ্রহণকারী প্রেসিডেন্ট ওব্রাদর হুয়াচিকোলেওর বিরুদ্ধে বড় ধরনের অভিযান শুরু করেছেন।

মেক্সিকোর রাষ্ট্রীয় পেট্রোলিয়াম কোম্পানি পেমেক্স এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ‘অবৈধ আঘাতের’ কারণে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত্র হয়।  অতীতেও পেমেক্সের পাইপলাইনে এ ধরনের বড় বড় দুর্ঘটনা ঘটেছে।

২০১৩ সালে মেক্সিকো সিটিতে কোম্পানির প্রধান কার্যালয়ে ‍বিস্ফোরণে অন্তত ৩৭ জন নিহত হয়। তার আগের বছর পেমেক্সের একটি গ্যাস কারখানায় অগ্নিকাণ্ডে ২৬ জন প্রাণ হারায়।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads