• শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮, ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৪
ads
তিন জেলায় সড়কে ঝরল ১৪ প্রাণ

তিন জেলায় পৃথক দুর্ঘটনায় সড়কে ঝরেছে ১৪ প্রাণ

ছবি: প্রতীকী

দুর্ঘটনা

তিন জেলায় সড়কে ঝরল ১৪ প্রাণ

  • ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত ২৭ জুলাই ২০১৮

তিন জেলায় পৃথক দুর্ঘটনায় সড়কে ঝরেছে ১৪ প্রাণ। এর মধ্যে বরগুনায় বাস-মাহিন্দ্রর মুখোমুখি সংঘর্ষে শিশুসহ সাতজন, সিলেটের ওসমানীনগরে ট্রাক-মাইক্রোর মুখোমুখি সংঘর্ষে চারজন ও কিশোরগঞ্জে মোটরসাইকেলের নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সঙ্গে ধাক্কা লেগে তিন শিক্ষার্থী নিহত হয়েছে। আমাদের ব্যুরো অফিস ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

বরগুনা : জেলার আমতলী উপজেলার মানিকঝুড়িতে যাত্রীবাহী বাস ও মাহিন্দ্রর মুখোমুখি সংঘর্ষে সাতজন নিহত হয়েছে। এ মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় আরো পাঁচজন আহত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে বরিশাল-কুয়াকাটা মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত ব্যক্তিদের মধ্যে ঘটনাস্থলে ছয়জন ও হাসপাতালে নেওয়ার পথে একজন মারা যায়। আহতদের স্থানীয় আমতলী ও পটুয়াখালী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আমতলী থানার ওসি নূরুল ইসলাম বাদল জানান, কুয়াকাটা থেকে ছেড়ে আসা আল্লাহ ভরসা পরিবহনের যাত্রীবাহী একটি বাস আমতলী উপজেলার মানিকঝুড়ি নামক এলাকায় বিপরীত দিক থেকে আসা যাত্রীবাহী একটি মাহিন্দ্রকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই ছয়জন ও পরে হাসপাতালে নেওয়ার পথে একজন মারা যায়। আহত হয় পাঁচজন। হতাহতরা মাহিন্দ্রর যাত্রী। মরদেহ স্থানীয় আমতলী উপজেলা হাসপাতালে রাখা হয়েছে। পুলিশ বাসটি আটক করলেও চালক ও সহকারী পালিয়ে যায়। বাসটি কুয়াকাটা থেকে আমতলী আসছিল। মাহিন্দ্রটি যাত্রী নিয়ে আমতলী থেকে বগী বাজারে যাচ্ছিল।

পুলিশ জানায়, নিহতদের মধ্যে চারজনের পরিচয় পাওয়া গেছে। এরা হলো আমতলীর তারিকাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিক সালমা আক্তার (৩৫), বগী এলাকার শানু হাওলাদার (৪০), চান মিয়া (৫৫) ও মাহিন্দ্রর চালক আবু হানিফ। নিহত অপর তিনজনের পরিচয় তাৎক্ষণিকভাবে পাওয়া যায়নি। এর মধ্যে এক তিন মাসের শিশু রয়েছে। গুরুতর আহতদের মধ্যে নিহত শিশুটির মা ফাহিমা (৩০), জসিম মৃধাসহ (৪০) তিনজনকে মুমূর্ষু অবস্থায় পটুয়াখালী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বরগুনার ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক আনোয়ারুল নাসের, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তোফায়েল আহম্মেদসহ অন্যান্য কর্মকর্তা দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক আনোয়ারুল নাসের জানান, নিহতদের লাশ দাফন করার জন্য জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে দশ হাজার টাকা করে দেওয়া হচ্ছে।

সিলেট : জেলার ওসমানীনগরে ট্রাক-মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে চারজন নিহত হয়েছে। এতে গুরুতর আহত অবস্থায় আরো তিনজনকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের ওসমানীনগরের ইলাসপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে বলে জানান ওসমানীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আলী মাহমুদ। তিনি জানান, সিলেটেমুখী একটি ট্রাক ঢাকামুখী মাইক্রোবাসকে চাপা দিলে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে। এ সময় ঘটনাস্থলেই চারজনের মৃত্যু হয়। বাকিদের উদ্ধার করে গুরুতর আহত অবস্থায় ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। তবে তাৎক্ষণিকভাবে হতাহতদের পরিচয় জানা সম্ভব হয়নি। ঘটনার পর ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে কিছুক্ষণের জন্য যান চলাচল বন্ধ থাকলেও এখন ধীরগতিতে যানবাহন চলাচল করছে বলেও জানান পুলিশের ওই কর্মকর্তা।

কিশোরগঞ্জ : জেলার কটিয়াদীতে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশের গাছের সঙ্গে ধাক্কা লেগে একই মোটরসাইকেলে থাকা চার আরোহীর মধ্যে তিনজন নিহত হয়েছে। নিহতরা হলো সাব্বির খান (১৭), মাছুম বিল্লাহ (১৭) ও দিপু (১৬)। এছাড়া মোটরসাইকেলের অপর আরোহী অন্তর (১৫) গুরুতর আহত হয়। তাকে মুমূর্ষু অবস্থায় বাজিতপুর জহুরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এরা সবাই স্কুল ও কলেজের শিক্ষার্থী। বুধবার রাত ১০টার দিকে কটিয়াদী উপজেলার বোয়ালিয়া রোডের দড়িচড়িয়াকোনা এলাকায় মর্মান্তিক এ দুর্ঘটনা ঘটে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads