• বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১ কার্তিক ১৪২৪
ads
হেলপারের ধাক্কায় যাত্রীর মৃত্যু

সড়কে ঝরল আরো চার প্রাণ

প্রতীকী ছবি

দুর্ঘটনা

হেলপারের ধাক্কায় যাত্রীর মৃত্যু

সড়কে ঝরল আরো চার প্রাণ

  • ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত ২৮ আগস্ট ২০১৮

সড়কে মৃত্যুর মিছিল থামছে না। সঙ্গে আসছে না শৃঙ্খলা। পরিবর্তন হচ্ছে না পরিবহন শ্রমিকদের আচরণ। গতকাল সোমবারও চট্টগ্রামে হেলপারের ধাক্কায় এক যাত্রীর মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়া চার জেলা পাবনা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, রাজশাহী এবং নেত্রকোনায় স্কুল শিক্ষার্থীসহ চারজন নিহত হয়েছেন। ব্যুরো অফিস ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর—

চট্টগ্রাম : চট্টগ্রাম নগরের সিটি গেটের অদূরে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে বাস থেকে নামার সময় হেলপারের ধাক্কায় এক যাত্রীর মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় বিক্ষোভ করেছেন এলাকাবাসী। গতকাল সোমবার  মহাসড়কের গ্ল্যাক্সো কারখানার সামনে এই দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত যাত্রী রেজাউল করিম রনির (২৮) বাড়ি নগরের আকবর শাহ থানার সিটি গেট এলাকায়।

আকবর শাহ থানার ওসি বলেন, ‘নগরে চলাচলকারী সিটি সার্ভিসের একটি বাস থেকে নামার সময় ছিটকে পড়ে এক যাত্রীর মৃত্যু হয়। ঘটনার পর পরই বাসের চালক ও সহকারী পালিয়ে যায়। স্থানীয় বাসিন্দারা অভিযোগ করেছেন, ওই যাত্রীকে বাস থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেওয়া হয়। পরে তারা মহাসড়কে বিক্ষোভ করেন। এ সময় মহাসড়কে ও আশপাশের সড়কে যানজটের সৃষ্টি হয়। আমরা বাসটি জব্দ করেছি। চালক ও হেলপারকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

পাবনা : শহরের লাইব্রেরি বাজার এলাকায় ট্রাকচাপায় স্কুলছাত্রী সুরাইয়া ইসলাম বিন্দু (১৩) নিহত হয়েছে। গতকাল সোমবার দুপুর ১২টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ দুর্ঘটনায় তার ভাই মেহেদী হাসান বিশাল আহত হয়েছেন। নিহত বিন্দু শহরের গোপালপুর আইবি রোডের শফিকুল ইসলাম বিপুর মেয়ে ও পাবনা পুলিশ লাইনস্ স্কুলের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী। পাবনা সদর থানার ওসি (তদন্ত) জালাল উদ্দিন জানান, বিন্দু তার ভাই বিশালের সঙ্গে মোটরমাইকেলে যাচ্ছিল। পথিমধ্যে লাইব্রেরি বাজারের গ্রিন লিফ স্কুলের সামনে পৌঁছালে ব্যাটারিচালিত একটি অটোরিকশার সঙ্গে ধাক্কা লেগে মোটরসাইকেল থেকে ছিটকে পড়লে পেছন থেকে দ্রুতগতির একটি ট্রাক তাদের চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই বিন্দু নিহত হয়। গুরুতর আহত বিন্দুর ভাইকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে নিহত ছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার করে। ট্রাক ও ট্রাকের চালক সাগর আলীকে আটক করে পুলিশ।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া : ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে সিএনজিচালিত অটোরিকশা ও কভার্ড ভ্যানের মুখোমুখি সংঘর্ষে মনোয়ারা বেগম (৫৫) নামে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। গতকাল সোমবার সকাল ১১টার দিকে উপজেলার সোনারামপুর এলাকার মহাসড়কের উজান ভাটি হোটেলের পাশে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

রাজশাহী : ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়কের রাজশাহীর পুঠিয়ায় যাত্রীবাহী একটি বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে গিয়ে একজন নিহত ও ২০ জন আহত হয়েছেন। বেলপুকুরিয়া থানার ওসি শেখ মো. গোলাম মোস্তফা জানান, গত রোববার রাত সাড়ে ১২টার দিকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী রুপা পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উপজেলার বেলপুকুর বিজিবি চেকপোস্টে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এতে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বিজিবির ঘরের বারান্দার সঙ্গে ধাক্কা খেয়ে পাশের খাদে বাসটি উল্টে যায়। বিজিবি, ফায়ার সার্ভিসের টিম ও বেলপুকুর থানার সদস্যরা আহত যাত্রীদের উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে পাঠায়। রামেকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ এলাকার হুমায়নের ছেলে আমিনুল ইসলামের (৩০) মৃত্যু হয়।

নেত্রকোনা : যাত্রীবাহী বাসের সঙ্গে সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষে এক শিশু নিহত হয়েছে। এ সময় গুরুতর আহত হয় আরো ৬ জন। আহতদের মুমূর্ষ অবস্থায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গতকাল সোমবার দুপুর দেড়টার দিকে সদর উপজেলার চল্লিশা ইউনিয়নের রাজেন্দ্রপুর পল্লী বিদ্যুৎ সংলগ্ন এলাকায় নেত্রকোনা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত শিশুটি নেত্রকোনার বারহাট্টা উপজেলার সবুজ মিয়ার  মেয়ে স্বপ্না আক্তার (৮)।

 

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads