• মঙ্গলবার, ২৬ মে ২০২০, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫
ads
মেঘনা নদীতে দুই স্পিডবোটের সংঘর্ষে নিহত ২

সংগৃহীত ছবি

দুর্ঘটনা

মেঘনা নদীতে দুই স্পিডবোটের সংঘর্ষে নিহত ২

  • চাঁদপুর প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ০৪ এপ্রিল ২০২০

রাতের অন্ধকারে গোপনে চাঁদপুরের মেঘনা নদীতে জাটকা ইলিশ বহন করা দুটি স্পিডবোটের সংঘর্ষে দুইজন নিহত হয়েছেন। একজনের মরদেহ উদ্ধার করা হলেও অপরজন এখনো নিখোঁজ রয়েছেন।

গতকাল শুক্রবার রাতে শরীয়তপুরের কাচিঘাটা নৌ-সীমানায় দুটি স্পিডবোটের মুখোমুখি সংঘর্ষে এই ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান হাজী হযরত আলী বেপারী জানান, দুইজনের একই নাম। যার মৃতদেহ পাওয়া গেছে তার নাম আল আমিন(২২)। তিনি রাজরাজেস্বর ইউনিয়নের বাগারিয়া গ্রামের আবুল বাসার এর ছেলে। অপর জন হলেন আল আমিন (২৭) শরীয়তপুরের কার্তিকাদার চরের আবদুল খালেক হাওলাদারের ছেলে।

এলাকাবাসি জানায়, শুক্রবার রাতে ঝড়ের পরে রাজরাজেশ্বর জাহাজমারা এলাকার দুটি মাছ ঘাটের জেলেদের বিপুল পরিমাণ জাটকা ও ইলিশ মাছ পাচারের জন্য মাওয়ার উদ্দেশ্যে নিয়ে যাচ্ছিল তারা। এসময় স্থানীয় খোকন মোল্লার মাছ বহনকারী স্পিডবোটটি মাওয়া যাওয়ার সময় বিপরীত দিক থেকে মাছ বিক্রি করে আসা রফিকউল্লা দেওয়ানের স্পিডবোটের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। সাথে সাথে দুটি স্পিডবোটে থাকা আরোহীরা ছিটকে নদীতে পড়ে যায়। পরে ঘটনাস্থল থেকে আলামিনের মৃতদেহ উদ্ধার করা গেলেও অপর জন এখনো পর্যন্ত নিখোঁজ রয়েছে।

শরীয়তপুর নৌ থানা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. আল মামুন মুঠো ফোনে জানান, আমরা সকাল থেকেই নদীতে আছি। নদীতে প্রচুর বাতাস বইছে। এক জনের মরদেহ পাওয়া গেছে। আরেক জনের মরদেহ এখনো পাওয়া যায়নি।

চাঁদপুর নৌ থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জাহিদুল ইসলাম জানান, আল আমিন নামক একজনের মৃতদেহ চাঁদপুর সদর থানা উদ্ধার করে ময়না তদন্ত শেষে শরীয়তপুর নৌ পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেছে। ওখান থেকে আল আমিনের পরিবার মৃত দেহ বুঝে নেবে। এ ঘটনায় শরীয়তপুর থানায় মামলা হবে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads