• বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৫ আশ্বিন ১৪২৭
ads
শৈলকুপায় সাপের কামড়ে প্রাণ গেল শিশুর, এক সপ্তাহে তিনজনের মৃত্যু

ফাইল ছবি

দুর্ঘটনা

শৈলকুপায় সাপের কামড়ে প্রাণ গেল শিশুর, এক সপ্তাহে তিনজনের মৃত্যু

  • প্রকাশিত ১২ আগস্ট ২০২০

শৈলকুপা (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি 

ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলায় সাপের কামড়ে আহম্মদ মন্ডল (৪) নামের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার দিবাগত রাতে উপজেলার ৯নং মনোহরপুর ইউনিয়নের উত্তর পাইকপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।

নিহত শিশু ওই গ্রামের মিনারুল মন্ডলের ছেলে।

স্থারীয় ও পরিবার সুত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার রাতে নিহত শিশু আহম্মদ বাড়ির পেছনে গেলে তাকে সাপে কামড় দেয়। পরে রাতে তাকে শৈলকুপা হাসপাতালে নিয়ে গেলে গভীর রাতে হাসপাতালে শিশুটির মৃত্যু হয়।

উল্লেখ্য, শৈলকুপা উপজেলা জুড়ে এক জাতের সাপের উপদ্রব বৃদ্ধি পেয়েছে। বেশীরভাগ ক্ষেত্রে রাতে বিছানায় উঠে ঘুমন্ত মানুষকে কামড়ে দ্রুত স্থান ত্যাগ করে এই জাতের সাপ। এই সাপের দাঁত সরু বিধায় কামড়ানোর সময় যন্ত্রনা কম অনুভব হয়। কামড়ানোর সময় অনেকে সাপ না দেখলে নিশ্চিত হতে পারেন না যে সাপে কামড়েছে। তবে এই জাতের সাপ কামড়ানোর সময় পুরোপুরি বিষ ঢেলে দেয়। কামড়ানোর বেশ কিছুক্ষণ পর আস্তে আস্তে বিষ সর্ব শরিরে ছড়িয়ে পড়ে। যে কারনে হঠাৎ করেই আক্রান্ত ব্যক্তি মৃত্যুর কোলে ঢোলে পড়ে। এই সাপে কামড়ানো ব্যক্তিদের বেঁচে যাওয়ার রেকর্ড খুবই কম।

এই সাপ কৃষ্ণকাণন, শাখাকানণ, কাণনবোড়া, কালাচ, কাল গোকরা ও ঘামচাটা ইত্যাদি নামে পরিচিত।

এদিকে সাপের উপদ্রব বৃদ্ধি পাওয়ায় এলাকাবাসী আতংকিত হয়ে পড়েছে। এক সপ্তাহের ব্যবধানে সাপের কামড়ে দুই শিশুসহ তিন জনের মৃত্যু হয়েছে। সাপের উপদ্রব বন্ধে ও সাপে কাটা রোগীর চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করতে এখন পর্যন্ত কর্তৃপক্ষ কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি বলে স্থানীয়দের অভিযোগ।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads