• মঙ্গলবার, ১৮ ডিসেম্বর ২০১৮, ২১ কার্তিক ১৪২৪

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ২০১৮

রেজাউলের এলাচ নার্সারি

প্রতিনিধির পাঠানো ছবি

কৃষি অর্থনীতি

রেজাউলের এলাচ নার্সারি

  • প্রকাশিত ০৫ ডিসেম্বর ২০১৮

কুড়িগ্রামের রৌমারী উপজেলার যাদুরচর ইউনিয়নের চুলিয়ারচর গ্রামে নিজ বাড়িতে রেজাউল ইসলাম স্বল্প পরিসরে গড়ে তুলেছেন এলাচের চারা তৈরির নার্সারি। তার উৎপাদিত চারা এলাকাবাসী ছাড়াও বিভিন্ন জায়গার মানুষ সংগ্রহ করে বাগান করছেন। সম্প্রতি সরেজমিনে রেজাউলের বাড়িতে গিয়ে দেখা যায় উঠানের একপাশে মাটির হাঁড়িতে বসানো এলাচের চারা। কিছু চারার পাতা ও শাখা-প্রশাখা কেটে দেওয়া হয়েছে। এগুলো আগে বিক্রি করা হবে। আবার কিছু চারার শাখা-প্রশাখাও আছে। থাকার ঘরের পাশেই প্রথম লাগানো হয় এলাচের বড় গাছ। এই গাছ থেকেই বীজ ও চারা করা হয়। পাশেই আরেকটি ছোট গাছ আছে। কাটিং পদ্ধতি ব্যবহার করে তিনি চারা তৈরি করেন। কথা প্রসঙ্গে রেজাউল বলেন, ২০০৯ সালে ঢাকায় বিশ্ব ইজতেমায় গিয়ে রেজাউল ইসলামের পরিচয় হয় এক বিদেশি নাগরিকের সঙ্গে। পরের বছর ইজতেমায় ওই বিদেশি রেজাউলকে কয়েকটি কালো এলাচের বীজ ও চারা এনে দেন। সেই বীজ বাড়িতে এনে প্রাথমিকভাবে শুরু করেন এলাচ চাষ। সেই এলাচ চাষ ও চারা তৈরি করেই স্বপ্নজয়ের পথে হাঁটছেন রেজাউল। 

রেজাউল ইসলাম জানান, প্রথমে ইচ্ছা ছিল এলাচের বাগান করার কিন্তু আমার বাগান করার মতো জায়গা নেই। তাই চারা তৈরি করে বিক্রি করছি। সরকারিভাবে জমি বরাদ্দ করলে তিনি ব্যাপক পরিসরে এলাচ উৎপাদনের উদ্যোগ নিতেন বলেও জানান। তিনি আরো বলেন, চারা লাগানোর প্রথম দুই বছর ফল ধরে না। পরবর্তী বছর থেকে ফুল ও ফল ধরা শুরু হয়। এলাচের গাছের গোড়ার দিকে ফুল ধরে। পরিপক্ব ফল হলে প্রতিটি গাছ থেকে ৩০ থেকে ৪০টি পর্যন্ত এলাচ পাওয়া যায়। ফল কাঁচা অবস্থায় সংগ্রহ করে শুকিয়ে নিতে হয়। 

গত তিন বছরে ১৯ কেজি এলাচ উৎপাদন করেছেন। প্রতিটি চারা ১ হাজার টাকায় বিক্রি করেন। রেজাউল ইসলামের এলাচ চাষ করার বিষয়ে জানতে চাইলে রৌমারী উপজেলার অতিরিক্ত দায়িত্বে থাকা রাজীবপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কুমার প্রণয় বিষাণ দাস জানান, আমদানি নির্ভরতা কমাতে মসলা চাষ খুব গুরুত্বপূর্ণ হয়ে গেছে। রেজাউল ইসলাম যে কালো এলাচ চাষ করছেন তা অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত। তার উদ্যোগে কৃষি বিভাগের সহযোগিতায় এলাচ চাষ সম্প্রসারণ করতে হবে কৃষকদের মাঝে। তার এই উদ্যোগ সফল হবে বলে আমি মনে করি। 

রুহুল সরকার, রাজীবপুর (কুড়িগ্রাম) 

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads