• শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০১৯, ৪ শ্রাবণ ১৪২৫
ads

কৃষি অর্থনীতি

সবজি চাষে রতনের সাফল্য

  • কাজী মফিকুল ইসলাম, আখাউড়া (ব্রাহ্মণবাড়িয়া)
  • প্রকাশিত ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

আখাউড়া উপজেলার মোগড়া ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী জয়নগর গ্রামের দরিদ্র কৃষক রতন খান (৪৮) পতিত জমিতে নানা ধরনের সবজি চাষ করে অভাব অনটন ঘুছিয়ে সচ্ছলতার মুখ দেখেছেন। প্রায় ৭ বছর ধরে তিনি সবজি চাষ করে এলাকায় তাক লাগিয়েছেন। তার এই সাফল্য দেখে এলাকার অনেকেই সবজি চাষে ঝুঁকছেন।

রতন খান বলেন, এ কাজে সার্বক্ষণিক আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর লোকদের ভয় কাজ করত। তাই তিনি এ কাজ থেকে ফিরে আসেন। কোনো উপায় না দেখে একপর্যায়ে বাড়ি সংলগ্ন পতিত জমিতে সবজি চাষের আগ্রহ সৃষ্টি হয়। সেখানে তিনি কুমড়া, করলা, আলু, বরবটি, ঢেঁড়শ, কাকরোল, গাজর, শিম, টমেটো, পুঁইশাক, ক্ষিরাসহ নানা জাতের সবজি চাষ করে শুরু করে বেশ সফলতা পায়।

দিন-রাত কঠোর পরিশ্রম করে সবজি চাষের মাধ্যমে পরিচয় বদল করার চেষ্টা করছেন। এখন তিনি বারো মাসই সবজি চাষ করছেন। ফলে সবজি চাষই বদলে দিয়েছে তার ভাগ্যের চাকা। সবজি চাষে স্ত্রীসহ পরিবারের লোকজন সার্বিক সহযোগিতা করে আসছেন।  রতন বলেন, প্রথম বছর সবজি করে খরচ বাদে প্রায় ২৫ হাজার টাকা আয় হয়। এরপর তার এ চাষে আগ্রহ আরো বেড়ে যায়। দিন দিন বাড়ে এ চাষের পরিধিও। এ মৌসুমে করলা, বরবটি, ঢেঁড়শ, গাজর, শিম, টমেটো, পুঁইশাক, ক্ষিরা চাষ করা হয়েছে। এ পর্যন্ত আড়াই লাখ টাকার সবজি বিক্রি করেছেন বলে জানান তিনি। আশা করা হচ্ছে, এ বছর খরচ বাদে ১ লাখ টাকার বেশি আয় হবে।  তিনি এখন এলাকায় একজন সফল ও আদর্শ কৃষক হিসেবে পরিচিতি পেয়েছেন। বর্তমানে স্ত্রী ২ ছেলে ১ মেয়ে নিয়ে সুখ-শান্তিতেই দিনাতিপাত করছেন।

 

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads