• মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৯, ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
ads
পেটভর্তি প্লাস্টিক নিয়ে ক্ষুধায় মরছে সামুদ্রিক পাখি

সামুদ্রিক পাখির পাকস্থলীতে প্লাস্টিকের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে

ছবি : ইন্টারনেট

জীব ও পরিবেশ

পেটভর্তি প্লাস্টিক নিয়ে ক্ষুধায় মরছে সামুদ্রিক পাখি

  • ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত ২৬ জুন ২০১৮

প্লাস্টিক দূষণের প্রভাবে সবচেয়ে বেশি হুমকিতে আছে সামুদ্রিক প্রাণীরা। সুবিশাল নীলতিমি থেকে শুরু করে প্রবাল- সবার ভবিষ্যৎই হুমকিতে ফেলে দিচ্ছে সমুদ্রের মাত্রাতিরিক্ত প্লাস্টিক। কিছু দিন আগে ইন্দোনেশিয়ায় এক গবেষণার জন্য নমুনা হিসেবে সংগৃহীত সবকটি সামুদ্রিক প্রাণীর পাকস্থলীতে প্লাস্টিকের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে। তবে সম্প্রতি বিবিসির ওয়াইল্ড লাইফ টিম এমন কিছু ভিডিও ও ছবি সংগ্রহ করেছে, যা প্লাস্টিক দূষণের আরো ভয়ঙ্কর বাস্তবতা সামনে নিয়ে এসেছে। বিবিসি ইনিসিয়েটিভ কলড প্লাস্টিক ওয়াচ শিরোনামে এক প্রামাণ্যচিত্র তৈরির জন্যই এসব ফুটেজ সংগ্রহ করেছে।

বিবিসির সংগ্রহ করা ওইসব ভিডিও ও ছবিতে দেখা গেছে অনেকগুলো সামুদ্রিক পাখি সৈকতে মরে পড়ে আছে। পরে তাদের পেট কেটে দেখা গেছে বেশিরভাগ পাখির পেটই প্লাস্টিক খণ্ডে ভর্তি। লর্ড হোয়ি দ্বীপের ওইসব মৃত পাখির পাকস্থলী এতটাই ভর্তি যে সেখানে খাবারের জন্য আর কোনো জায়গা খালি নেই।

এ বিষয়ে অস্ট্রেলিয়ার সামুদ্রিক জীববিজ্ঞানী জেনিফার লেভার বলেন, সামুদ্রিক পাখিরা সাধারণত আপনি যা দেবেন তাই খাবে। সমুদ্রে এখন এত বেশি পরিমাণে প্লাস্টিক আছে যে পাখিরা সহজেই সেগুলো গলাধঃকরণ করতে পারছে। আর এর পরিণাম হচ্ছে ভয়াবহ। প্লাস্টিক কণাগুলো পাখিদের পেটে থেকে যাচ্ছে অক্ষত অবস্থায়। ফলে দিনে দিনে প্লাস্টিকে পূর্ণ হয়ে যাচ্ছে তাদের পাকস্থলী। এ কারণেই ওইসব পাখি প্রচণ্ড ক্ষুধা নিয়েও কিছু খেতে পারছে না। আর খাবারের অভাবে দুর্বল হয়ে মারা পড়ছে বেচারারা।

এ বাস্তবতায় প্লাস্টিক দূষণ নিয়ে আমাদের আরো সচেতন হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। তা না হলে প্লাস্টিক দূষণের কবলে পড়ে বিলুপ্ত হবে অনেক প্রাণী। ব্যাহত হবে জীববৈচিত্র্য। হুমকিতে পড়বে মানবসভ্যতা।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads