• বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১ কার্তিক ১৪২৪
ads

ছবি: ইন্টারনেট

এশিয়া

সাগরের নিচে রিসোর্ট

  • ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত ২৭ এপ্রিল ২০১৮

পানির নিচে রিসোর্ট তৈরি করতে যাচ্ছে মালদ্বীপ। দেশটির রাঙ্গোলি আইল্যান্ডে সাগরের গভীরে এটি নির্মাণ করেছে কনরাড মালদ্বীপ। পানির নিচে রিসোর্টটি ঘিরে থাকবে প্রবাল প্রাচীর। পানির গর্জন শুনতে শুনতে সাগরের গভীরে এক অজানা জগতের স্বাদ পাবেন পর্যটকরা। খবর সিএনএন।

১৬ ফুট পানির নিচের ওই রিসোর্টটির নাম হবে মুরাকা। স্থানীয় ধিভেহি ভাষায় যার অর্থ প্রবাল। ঘরে বসেই রঙ-বেরঙের প্রবাল প্রাচীরের শোভা দেখবেন পর্যটকরা। বেডরুমে বসেই দেখবেন আপনার চারপাশে খেলা করে বেড়াচ্ছে মাছ ও অক্টোপাস। ভাগ্যে থাকলে দু-একটা খুনে হাঙরেরও দেখা মিলতে পারে। চলতি বছর নভেম্বরেই পর্যটকদের জন্য খুলে দেওয়া হবে মুরাকা।

পর্যটকদের জন্য সুন্দর করে সাজানো হচ্ছে প্রতিটি ঘর। থাকবে বিলাস-ব্যসনের এলাহী আয়োজন। খাবারও পাওয়া যাবে মনের মতোই। রিসোর্টটিকে দুই ভাগে ভাগ করা হয়েছে। এটি অনেকটা দোতলা বাড়ির আদলে নির্মাণ করা হয়েছে।  একেবারে নিচের তলাটি সাগর তলের ১৬.৪ ফুট গভীরে। সেখানে প্রতিটি সুইটে থাকছে বেশ বড় বেডরুম এবং সুসজ্জিত বাথরুম।

নিচতলা থেকে ঘোরানো সিঁড়ি উঠে এসেছে পানির ওপর। সেখানেও রয়েছে থাকার ব্যবস্থা। পানির নিচের ঘরে বসে প্রবাল প্রাচীর দেখার পাশাপাশি ওপরে উঠে সূর্যের আলোও দেখা যাবে। রিসোর্টটিতে রয়েছে জিম, বার, সান ডেক, স্পা, এবং পর্যটকদের জন্য আলাদা লিভিং রুম। রিসোর্টটির অন্দরসজ্জার দায়িত্বে রয়েছেন আহমেদ সালিম। তিনি জানান, পর্যটকদের নিরাপত্তার বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করা হয়েছে। লোভনীয় এই রিসোর্টে এক রাত থাকতে হলে ব্যয় করতে হবে ৩৩ লাখ টাকা।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads