• বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১ কার্তিক ১৪২৪
ads
পুনর্বাসনের নামে নেমেছে চাঁদা সংগ্রহে

ভারতের দিল্লিস্থ মিয়ানমার দূতাবাসের ওয়েবসাইটে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট নম্বর দিয়ে রোহিঙ্গাদের পুনর্বাসনের জন্য চাঁদা আহ্বান করে নোটিশও দেওয়া হয়েছে

সংগৃহীত ছবি

এশিয়া

রোহিঙ্গাদের নিয়ে নতুন নাটক মিয়ানমারের

পুনর্বাসনের নামে নেমেছে চাঁদা সংগ্রহে

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮

রোহিঙ্গাদের নিয়ে নতুন নাটক শুরু করেছে মিয়ানমার। এবার তারা দেশটি থেকে বিতাড়িত রোহিঙ্গাদের পুনর্বাসনের নামে চাঁদা সংগ্রহে নেমেছে। ভারতের দিল্লিস্থ মিয়ানমার দূতাবাসের ওয়েবসাইটে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট নম্বর দিয়ে রোহিঙ্গাদের পুনর্বাসনের জন্য চাঁদা আহ্বান করে নোটিশও দেওয়া হয়েছে।

মিয়ানমারের দিল্লি দূতাবাসের ওয়েবসাইট ঘেঁটে দেখা যায়, সেখানে লাল কালিতে বড় অক্ষরে ‘অনুদান বা চাঁদা সংগ্রহ’ নামে একটি বিভাগ খোলা হয়েছে। সেখানে লেখা হয়েছে, ‘রাখাইন রাজ্য ইস্যুর সমস্যা সমাধানে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিন। অতি ক্ষুদ্র পরিমাণ সাহায্যও নিচের যেকোনো একটি অ্যাকাউন্টে জমা দেওয়ার জন্য অনুরোধ করা হলো।’

দূতাবাসের ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, সংগ্রহ করা অর্থ মিয়ানমারের ইউনিয়ন এন্টারপ্রাইজের মাধ্যমে রাখাইনে ব্যয় করা হবে। ইউনিয়ন এন্টারপ্রাইজ মিয়ানমারের একটি পাবলিক-প্রাইভেট কোম্পানি। এই প্রতিষ্ঠানের চেয়ারপারসন হলেন মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সিলর অং সান সু চি ও ভাইস চেয়ারম্যান দেশটির সমাজকল্যাণ, ত্রাণ ও পুনর্বাসনমন্ত্রী ড. উইন মিয়াত আই। ইউনিয়ন এন্টারপ্রাইজের প্রধানত তিনটি লক্ষ্য- রাখাইন রাজ্যের জন্য মানবিক সহায়তা, পুনর্বাসন ও উন্নয়ন বলেও উল্লেখ করা হয়েছে।

সাহায্যের জন্য পাঁচটি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট নম্বরও দেওয়া হয়েছে। মিয়ানমার ইকোনমিক ব্যাংকের দুটি ও কেবিজেড ব্যাংকের তিনটি অ্যাকাউন্ট নম্বর উল্লেখ করা হয়েছে সেখানে। আলাদা ব্যাংক অ্যাকাউন্টে মার্কিন ডলার, মিয়ানমারের মুদ্রা কিয়াত ও অন্য বৈদেশিক মুদ্রা জমা দেওয়ার জন্য আহ্বান জানানো হয়েছে সেখানে।

উল্লেখ্য, ২০১৭ সালের আগস্ট মাসে পরিকল্পিত হামলা ও নিপীড়নের শিকার হয়ে মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে এসে আশ্রয় নেয় সাত লক্ষাধিক রোহিঙ্গা। এ ছাড়াও আগের বিভিন্ন সময়ে আসা রোহিঙ্গাদের নিয়ে এ সংখ্যা ১১ লাখের বেশি।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads