• বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১ কার্তিক ১৪২৪
ads

এশিয়ার অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির গতি ইতিবাচক

প্রতীকী ছবি

ব্যাংক

প্রবৃদ্ধি ইতিবাচক হলেও অস্থিতিশীল এশিয়া

  • ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত ১১ মে ২০১৮

এশিয়ার অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির গতি ইতিবাচক প্রবণতায় রয়েছে। কিন্তু অস্থির বৈশ্বিক অর্থনৈতিক পরিস্থিতি, আরো বাজার সংশোধন ও সংরক্ষণবাদ নীতির দিকে আগ্রহের দরুন অস্থিতিশীলতা বাড়ছে এ অঞ্চলের অর্থনীতিতে। আঞ্চলিক অর্থনৈতিক পূর্বাভাস হালনাগাদ সংক্রান্ত প্রতিবেদনে সম্প্রতি এ তথ্য জানিয়েছে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ)।

সিএনবিসি এই প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে জানায়, চলতি বছর এশিয়ায় ৫ দশমিক ৬ শতাংশ প্রবৃদ্ধি হবে। এ হার অক্টোবরের পূর্বাভাসের চেয়ে দশমিক ১ শতাংশ পয়েন্ট বেশি। আর এ অঞ্চল বিশ্ব অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে অবদান রাখবে প্রায় দুই-তৃতীয়াংশ। যুক্তরাষ্ট্র প্রবৃদ্ধির গতি ইতিবাচক ধারায় রাখতে পদক্ষেপ নিতে পারে। এতে বৈশ্বিক প্রবৃদ্ধি ও বাণিজ্যিক পরিস্থিতি স্বল্পমেয়াদে শক্তিশালী হবে। আইএমএফ বলছে, বৈশ্বিক অর্থনৈতিক পরিস্থিতিতে এখনো অস্থিতিশীল এশিয়া। বৈশ্বায়ন থেকে অর্জিত বিষয়গুলোর সমবণ্টন হয়নি। এক্ষেত্রে মাঝারি মেয়াদে ঝুঁকির আশঙ্কা বাড়বে। আইএমএফ আরো জানায়, অস্থির বৈশ্বিক অর্থনৈতিক পরিস্থিতি, আরো বাজার সংশোধন ও সংরক্ষণবাদ নীতির দিকে আগ্রহের পাশাপাশি রয়েছে ভূ-রাজনৈতিক উদ্বেগ, সাইবার হামলা ও জলবায়ু পরিবর্তনের মতো বিষয়। এসবই বিশ্ব অর্থনীতিকে ঠেলে দিচ্ছে অনিশ্চয়তার দিকে। এখন বেশির ভাগ অর্থনীতির উচিত উপরিউক্ত বিষয়গুলো সমাধানে যথার্থ পদক্ষেপ নেওয়া।

Top of Form
বিশ্ব অর্থনীতি নিয়ে উদ্বেগের শুরু যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের মধ্যকার বাণিজ্য পরিস্থিতি দিয়ে। প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প চীনা পণ্য আমদানিতে বড় অঙ্কের শুল্ক আরোপের ঘোষণা দেন। প্রতিক্রিয়ায় চীনও যুক্তরাষ্ট্রের পণ্য আমদানিতে কর আরোপ করে। এখন বাণিজ্য সঙ্কট নিরসনে আলোচনা করছে দুই দেশ। অন্যদিকে চলতি হিসাব ঘাটতিতে রয়েছে এশিয়ার তিন বৃহৎ অর্থনীতি- ভারত, ইন্দোনেশিয়া ও ফিলিপাইন। এতে সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোয় এ তিন দেশের সঙ্কট আরো বাড়িয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের ট্রেজারি ও জ্বালানি তেলের দরবৃদ্ধি।

 

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads