• বৃহস্পতিবার, ২১ জুন ২০১৮, ৭ আষাঢ় ১৪২৫
ads
এসএমই ঋণে স্প্রেড ৪ শতাংশ

এসএমই বিনিয়োগে ঋণ ও আমানতের গড়ভারিত সুদহারের ব্যবধান ৪ শতাংশে সীমিত রাখতে হবে

ছবি সংরক্ষিত

ব্যাংক

এসএমই ঋণে স্প্রেড ৪ শতাংশ

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ১৩ জুন ২০১৮

ক্ষুদ্র ও মাঝারি খাতে (এসএমই) বিনিয়োগে ঋণ ও আমানতের গড়ভারিত সুদহারের ব্যবধান (স্প্রেড) ৪ শতাংশে সীমিত রাখতে হবে। শুধুমাত্র ভোক্তাঋণ ও ক্রেডিট কার্ডে এই সীমা ৪ শতাংশের বেশি হতে পারে।

গতকাল মঙ্গলবার বাংলাদেশ ব্যাংক এ-সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করেছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগের এক আদেশে বলা হয়েছে, মুক্তবাজার অর্থনীতির আওতায় বিভিন্ন খাতে ঋণের সুদহারের ঊর্ধ্বসীমা প্রত্যাহার করা হলেও ঋণের সুদহার নির্ধারণের স্বাধীনতা যাতে ব্যাংকগুলো কর্তৃক যৌক্তিকভাবে ব্যবহূত হয় সে লক্ষ্যে ২০১২ সালের ২২ জানুয়ারি ভোক্তাঋণ, ক্রেডিট কার্ড ও এসএমই ঋণ ছাড়া অন্যান্য খাতে প্রদত্ত ঋণের সুদহার এবং আমানত সংগ্রহের গড়ভারিত সুদহারের ব্যবধান ৫ শতাংশের নিচে রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়। ২০১৫ সালের অক্টোবরে জারি করা প্রজ্ঞাপনে ঋণের গড়ভারিত সুদহার হিসাবায়নের ক্ষেত্রে ভোক্তাঋণ ও ক্রেডিট কার্ডের পাশাপাশি এসএমই ঋণের সুদহার অন্তর্ভুক্ত ছিল না।

দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে এসএমই খাতের ভূমিকা ও অগ্রাধিকার বিবেচনায় এবং আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টিসহ দেশে অধিকতর কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে ওই খাতে প্রদত্ত ঋণের সুদহার যৌক্তিক পর্যায়ে নির্ধারণের নিমিত্তে অন্যান্য ঋণের সঙ্গে এসএমই খাতের সুদহার অন্তর্ভুক্ত করে ঋণ ও আমানতের গড়ভারিত সুদহারের ব্যবধান ৫ শতাংশের মধ্যে সীমিত রাখার জন্য নির্দেশনা দেওয়া হয়। একই ধারাবাহিকতায় গত ৩০ মে জারি করা ঋণ ও আমানতের গড়ভারিত সুদহারের ব্যবধান ৪ শতাংশের মধ্যে সীমিত রাখার জন্য নির্দেশনা জারি করা হয়।

নতুন নির্দেশনা জারির পর ব্যাংকারদের মধ্যে ওই স্প্রেড হিসাবায়নে এসএমই খাতের ঋণও অন্তর্ভুক্ত হবে কি না এ বিষয়ে অস্পষ্টতার সৃষ্টি হয়েছে মর্মে বাংলাদেশ ব্যাংকের গোচরীভূত হয়। বর্ণিত বিষয়ে অস্পষ্টতা নিরসনকল্পে এ মর্মে সবার অবগতির জন্য জানানো হয় যে, এসএমই খাতের ঋণের সুদহারও হিসাবায়ন করে ঋণ ও আমানতের গড়ভারিত সুদহারের ব্যবধান ৪ শতাংশের মধ্যে সীমিত রাখতে হবে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads