• বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯, ২৮ কার্তিক ১৪২৬
ads
যমুনা ব্যাংকের এমডি হচ্ছেন মির্জা ইলিয়াছ

ছবি : সংগৃহীত

ব্যাংক

যমুনা ব্যাংকের এমডি হচ্ছেন মির্জা ইলিয়াছ

  • সাইদ আরমান
  • প্রকাশিত ১৩ অক্টোবর ২০১৯

বেসরকারি খাতের যমুনা ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হচ্ছেন মির্জা ইলিয়াছ উদ্দিন আহমদ। পেশাদার এই ব্যাংকার বর্তমানে ব্যাংকটিতে অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি এই ব্যাংকে দায়িত্ব পালন করছেন কার্যক্রম শুরুর সময় থেকে। মির্জা ইলিয়াছ উদ্দিন বর্তমান ব্যবস্থাপনা পরিচালক শফিকুল আলমের স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, এরই মধ্যে মির্জা ইলিয়াছ উদ্দিন আহমদকে এমডি নিয়োগ দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। ব্যাংকের নীতিনির্ধারণী ফোরাম পরিচালনা পর্ষদের সায় মিলেছে। নিয়ম মোতাবেক, কোনো তফসিলি ব্যাংকের এমডি নিয়োগ চূড়ান্ত হয় কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সম্মতির পর। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তার নাম প্রস্তাব করে পাঠানো হয়। কেন্দ্রীয় ব্যাংক প্রস্তাবিত নামের তথ্যাদি বিধি মোতাবেক যাচাই করে অনুমোদন দিলেই এমডি নিয়োগ চূড়ান্ত হয়।

জানতে চাইলে মির্জা ইলিয়াছ উদ্দিন আহমদ বাংলাদেশের খবরকে বলেন, বিষয়টি এখনো চূড়ান্ত হয়নি। চূড়ান্ত হলে বলা যাবে। তবে বিষয়টি শুনেছি।

বর্তমান এমডি শফিকুল আলমের চাকরির চুক্তির মেয়াদ শেষ হচ্ছে চলতি মাসের ২০ তারিখে। তিনি সর্বশেষ ২০১৬ সালে এমডি হিসেবে দ্বিতীয় দফায় নিয়োগ পান। প্রথম দফায় ২০১৩ সালের ২৯ জানুয়ারি থেকে এ দায়িত্ব পালন পালন করে আসছেন শফিকুল আলম। যমুনা ব্যাংকে যোগ দেওয়ার আগে তিনি ইউনাইটেড কর্মাশিয়াল ব্যাংক লিমিটেডের (ইউসিবিএল) অতিরিক্ত এমডি ছিলেন। শফিকুল আলম ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমএসসি ডিগ্রি অর্জনের পর এএনজেড গ্রিন্ডলেজ ব্যাংকে ম্যানেজমেন্ট ট্রেইনি হিসেবে যোগ দিয়ে কর্মজীবন শুরু করেন। প্রাইম ব্যাংক ও ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকে যথাক্রমে এসইভিপি ও ডিএমডি ছিলেন।

অপরদিকে, ইলিয়াছ উদ্দিন যমুনা ব্যাংকে যোগ দেন ২০০১ সালে। ২০১৬ সাল থেকে ব্যাংকটির অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক পদে রয়েছেন। এর আগে একই ব্যাংকে উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে তিন বছর কাজ করেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ব্যবসায় অনুষদ থেকে উচ্চশিক্ষা নিয়ে ১৯৮৫ সালে ব্যাংকার হিসেবে পেশাজীবন শুরু করেন। বর্তমানে তিনি ব্যাংকটির সার্বিক অপারেশনে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছেন।

সূত্রগুলো বলছে, দক্ষ ব্যাংকার হিসেবে মির্জা ইলিয়াছ উদ্দিন আহমদের বিশেষ পরিচিতি রয়েছে। তিনি তফসিলি ব্যাংকগুলোর প্রাইমারি ডিলার ব্যাংক অ্যাসোসিয়েশনের কারিগরি কমিটির চেয়ারম্যান ছিলেন। 

বেসরকারি খাতের যমুনা ব্যাংক কার্যক্রম শুরু করে ২০০১ সালের ৩ জুন। তবে অনুমোদন পায় ১৯৯৪ সালে। টেকসই প্রবৃদ্ধির মাধ্যমে গ্রাহক প্রযুক্তিনির্ভর সেবা দেওয়ার লক্ষ্য নিয়ে কাজ করছে ব্যাংকটি। পরিচালনা পর্ষদ ও ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষের কৌশল পরিচালনায় প্রতি বছরই সন্তোষজনকভাবে আমানত, ঋণ, গ্রাহক সংখ্যা, মুনাফা বাড়ছে। কনভেনশনাল ব্যাংকিং কার্যক্রমের সঙ্গে সীমিত আকারে ইসলামী ব্যাংক কার্যক্রম রয়েছে যমুনা ব্যাংকের।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads