• শুক্রবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
প্রযোজক বিদ্যা বালান

ছবি : সংগৃহীত

বলিউড

প্রযোজক বিদ্যা বালান

  • বিনোদন ডেস্ক
  • প্রকাশিত ২৫ জুলাই ২০১৯

বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী বিদ্যা বালান নতুন পরিচয়ে আসছেন। এবার প্রযোজনায় নামছেন এই অভিনেত্রী। ছবির নাম ‘নটখট’। সামাজিক ইস্যু নিয়ে তৈরি হতে যাচ্ছে ছবিটি। প্রযোজনার পাশাপাশি অভিনয়ও করবেন বিদ্যা। তবে এটি ফিচার ফিল্ম নয়। স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রের মাধ্যমেই প্রযোজনায় নাম লেখাচ্ছেন তিনি।

ভারতীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়, চিত্রনাট্য দেখে বিদ্যা নাকি এতটাই উৎফুল্ল, খোশ মেজাজে প্রযোজনার সিদ্ধান্তও নিয়ে নিয়েছেন তিনি। ধর্ষণ, লিঙ্গবৈষম্য, যৌন হেনস্তা এমন নানা বিষয় ফুটে উঠবে ছবিতে। কাহিনীতে উঠে আসবে, পুরুষতান্ত্রিক সমাজের ঘেরাটোপে রোজকার জীবনে ঘরে-বাইরে কীভাবে নারীদের হেনস্তা হতে হয় এবং ক্রমশ তা কীভাবে প্রকট আকার ধারণ করছে, সেই বিষয়গুলোর দিকেও আলোকপাত করবে বিদ্যা প্রযোজিত ছবি ‘নটখট’।

তবে শুধু বিদ্যাই নন, ছবির সহপ্রযোজনা করছেন বলিউডের আরেক খ্যাতনামা প্রযোজক রনি স্ক্রিওয়ালা। ছবির চিত্রনাট্য বেঁধেছেন অনুকম্পা হর্ষ এবং শান ব্যাস। পরিচালনার দায়িত্বভার বর্তেছে শান ব্যাসের ওপর। ‘ডার্টি পিকচার’ সিনেমায় বোল্ড সিল্ক স্মিতার চরিত্রে অভিনয় করে দুনিয়া মাতিয়ে ছিলেন বিদ্যা বালান। পরে ‘তুমহারে সুলু’ ছবিতে উচ্চাকাঙ্খী গৃহিণীর রেডিও জকি হয়ে ওঠার গল্প বলেন এই বলিউড অভিনেত্রী। বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করে দর্শকদের মন জয় করে নিয়েছেন তিনি। সম্প্রতি বয়স ৪০ পার হয়েছে তার। একটি সাময়িকীকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বিদ্যা বলেছিলেন, ‘চল্লিশের পরও মেয়েরা আরো আবেদনময়ী হয়। চল্লিশের পর মেয়েরা আরো বেশি পরোয়া করে না।’

বর্তমানে দেখা যাচ্ছে, গণমাধ্যমে একের পর এক মন্তব্য করে আলোচনায় থাকছে বিদ্যা। কখন তার ভীষণ রাগ হয় এবার জানালেন সেই কথা। বিদ্য বালান বলেন, ‘আমার শরীর নিয়ে কেউ প্রশ্ন করলে ভীষণ রাগ হয়। শরীর নিয়ে নানা কথা শুনে আসছি ছোটবেলা থেকেই। একসময় মানুষ বলত, তুমি দেখতে কত সুন্দর, কেন ওজন কমাও না? অথচ ওজন কমানোর জন্য উপোস করতাম। পাগলের মতো ব্যায়াম করেছি। হরমোনজনিত সমস্যার কারণে এই সমস্যার সমাধান কখনো হয়নি।’

ভারতের বিখ্যাত গণিতবিদ শকুন্তলাকে নিয়ে নির্মিত বায়োপিকে পরবর্তী সময়ে দেখা যাবে বিদ্যা বালানকে। খবরে প্রকাশ, এই ছবিতে বিদ্যার মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করবেন দঙ্গলকন্যা সানিয়া মালহোত্রা। এ ছাড়া হিন্দি ‘পিংক’ ছবির তামিল রিমেকে অজিত কুমারের বিপরীতে দেখা যাবে এই অভিনেত্রীকে। আর এটাই বিদ্যার প্রথম তামিল ছবি।

২০০৫ সালে ‘পরিণীতা’ ছবির মাধ্যমে বলিউডে অভিষেক হয়েছিল বিদ্যার। ‘লাগে রাহো মুন্না ভাই’, ‘ভুল ভুলাইয়া’, ‘দ্য ডার্টি পিকচার’ ও ‘কাহানি’ হলো তার অভিনীত কয়েকটি উল্লেখযোগ্য সিনেমা। বলিউড চলচ্চিত্রে অভিনয়ের পাশাপাশি তিনি বাংলা, তামিল, মালয়ালম এবং হিন্দি ভাষার চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। অভিনয়ের জন্য পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার, ফিল্মফেয়ার পুরস্কার। এ ছাড়া তাকে ২০১৪ সালে ভারত সরকার কর্তৃক দেশের চতুর্থ সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মাননা পদ্মশ্রী পদক দেওয়া হয়।

 

 

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads