• বুধবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
ঘর ভাঙল দিয়ার

ছবি : সংগৃহীত

বলিউড

ঘর ভাঙল দিয়ার

  • বিনোদন ডেস্ক
  • প্রকাশিত ০৩ আগস্ট ২০১৯

বলিউড পাড়ায় কিছুদিন পরপরই শোনা যায় বিচ্ছেদের সুর। একে অপরকে দোষ দিয়ে অনেকে সংসারধর্ম  ত্যাগ করেন। সেই তালিকায় এবার যুক্ত হলো দিয়া মির্জার নাম।

এবার পাঁচ বছরের বিবাহিত জীবনের ইতি টানলেন সাবেক বিউটি কুইন দিয়া মির্জা ও সাহিল সাঙ্গা দম্পতি। বৃহস্পতিবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দিয়া এক যৌথ বিবৃতিতে তাদের বিচ্ছেদের কথা জানান। সেখানে তিনি লেখেন, এগারো বছর একসঙ্গে বসবাসের পর আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি আলাদা হওয়ার। সিদ্ধান্তটি আমরা দুজনে মিলেই নিয়েছি। বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক এবং পরস্পরের প্রতি শ্রদ্ধা থাকবে সর্বদা।

ক্যারিয়ারে অভিনেত্রী হিসেবে নিজেকে খুব বেশি প্র্রতিষ্ঠিত করতে পারেননি দিয়া। তবে সামাজিক কর্মকাণ্ডের জন্য তিনি বেশি পরিচিত। ২০১৪ সালে দিয়া ভালোবেসে বিয়ে করেন দীর্ঘদিনের বিজনেস পার্টনার ও প্রেমিক সাহিলকে। বিয়ের আগে অনেকদিন তারা লিভ-ইনও করেন। বলিউডের আদর্শ দম্পতি হিসেবেই জানতো সবাই। তাদের সংসারে ভাঙন! ভাবতেও পারেননি কেউ।

এগারো বছরের সম্পর্কের ইতি টানতে গিয়ে তারা দুজনেই এক পোস্টে লিখেছেন, ‘সম্পর্ক শেষ করলেও আমাদের বন্ধুত্ব থাকবে।’ তবে কী কারণে তাদের বিবাহবিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত, তা স্পষ্ট করেননি।

বলিউডে ২০০১ সালে ‘রেহেনা হে তেরে দিলমে’ ছবির মাধ্যমে সাড়া ফেলেছিলেন। প্রথম ছবিতে দিয়াকে ভালোভাবেই গ্রহণ করেছিলেন দর্শক। পরবর্তীকালে আরো বেশ কয়েকটি ছবিতে অভিনয় করেন। কিন্তু সফলতা পাননি দিয়া।

পরে বিরতি ভেঙে ‘লাভ ব্রেক আপ জিন্দেগি’ ছবির মাধ্যমে বড়পর্দায় ফেরেন। কিন্তু বরাবরের মতো এই ছবিটিও দর্শকপ্রিয়তা পায়নি। তবে এই ছবির মাধ্যমে মনের মানুষ খুঁজে পেয়েছিলেন দিয়া। এরপরই ছবির পরিচালক এবং ব্যবসায়ী সাহিল সাঙ্গাকে বিয়ে করেন দিয়া।

‘জাজমেন্টাল হ্যায় কেয়া’ ছবির চিত্রনাট্যকার কণিকা ধিলোর সঙ্গে সম্পর্ক রয়েছে সাহিলের। এক মাস আগেই এ বিষয়ে জানতে পারেন দিয়া। তারপর থেকেই দিয়া আর সাহিলের মধ্যে দূরত্ব তৈরি হয়।

‘জাজমেন্টাল হ্যায় কেয়া’র পরিচালক প্রকাশ কোভেলামুড়ির সাবেক স্ত্রী কণিকা। তাদের সম্পর্কও দুই বছর আগে ভেঙে যায়। প্রায় মাসছয়েক সাহিল ও কণিকা ডেট করছেন। দিয়া কোনোভাবেই বুঝতে পারেননি। জানার পরেই সম্পর্ক শেষ করার সিদ্ধান্ত নেন অভিনেত্রী। আরেক পোস্টে তারা বলেছেন, ভবিষ্যতে এ বিষয়ে মন্তব্য করবেন না।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads