• রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৭ আশ্বিন ১৪২৬
ads

বলিউড

যত গর্জে তত বর্ষে না!

  • বিনোদন ডেস্ক
  • প্রকাশিত ৩১ আগস্ট ২০১৯

দক্ষিণী ভারতের ছবি ‘সাহো’। মুক্তির আগেই যে ছবিকে নিয়ে আলোচনার শেষ নেই। সফলতার শেষ নেই। ছবিটি দেখার জন্য মুখিয়ে ছিলেন দর্শক-ভক্তরা। পিছিয়ে ছিলেন না  সমালোচনাকারীরাও। ছবিটি আলোচনায় থাকার কারণও ছিল। একে তো পর্দায় দক্ষিণী তারকা প্রভাসের ফেরা, প্রভাসের সঙ্গে শ্রদ্ধা কাপুরের নতুন কেমিস্ট্রি। অন্যদিকে বিশাল বাজেটের ছবি। সব মিলিয়ে তারকাবহুল চলচ্চিত্রটি মুক্তির আগেই আলোচনার শীর্ষে উঠে আসে।

অবশেষে ‘সাহো’ মুক্তি পেয়েছে। তবে এ ছবি নিয়ে এখন মিশ্র প্রতিক্রয়া হয়েছে। ইন্ডিয়া টিভির অনলাইন সংস্করণের প্রতিবেদন জানাচ্ছে, ‘বাহুবলি’-খ্যাত প্রভাস ও বলিউড সুন্দরী শ্রদ্ধা কাপুর অভিনীত সিনেমাটি গতকাল শুক্রবার ভারতসহ আরো বেশ কিছু দেশে মুক্তি পেয়েছে। এ সিনেমার মাধ্যমে প্রভাসকে দীর্ঘদিন পরে বড় পর্দায় দেখা যাচ্ছে।

ছবিটি দেখতে দেশটির সিনেমা হলগুলোতে উপচে পড়া ভিড় লক্ষ করা যায়। ভক্তদের তর যেন সইছে না। দক্ষিণ ভারতের সিনেমা হলগুলোতে যেন তিলধারণের জায়গা নেই। একইভাবে উত্তর ভারতের হলগুলোও লোকে লোকারণ্য। প্রভাসের অভিনয় জাদু দেখার এ মধুর প্রতীক্ষার পর খুশির আভা ফুটে উঠেছে ভক্তদের মধ্যে। ভক্তরা এরই মধ্যে সিনেমাটিকে ‘ব্লকবাস্টার’ হিসেবে অভিহিত করেছেন।

অন্যদিকে সমালোচকরাও অবশ্য মুখিয়ে ছিলেন ছবিটি সম্পর্কে মতামত জানাতে। এরই মধ্যে চলচ্চিত্র সমালোচক ও বাণিজ্য বিশ্লেষক তারান আদর্শ তার মতামত প্রকাশ করেছেন। এক টুইটবার্তায় খ্যাতিমান এ বিশ্লেষক ‘সাহো’র এক লাইনের রিভিউ দিয়ে লিখেছেন ‘অসহ্য’।

তিনি লেখেন, মেধা, অর্থ ও সুযোগের বিশাল অপচয়। দুর্বল গল্প, বিভ্রান্তিমূলক অভিনয় ও অপরিণত পরিচালনা। সিনেমাটিকে রেটিং দিতেও ভোলেননি তিনি। তারানের কাছ থেকে পাঁচের মধ্যে মাত্র দেড় রেটিং জুটেছে। সিনেমাটির।

তামিল, তেলেগু, হিন্দি ও মালয়ালাম ভাষায় মুক্তি পেয়েছে সিনেমাটি। এতে প্রভাস-শ্রদ্ধা ছাড়াও নীল নিতিন মুকেশ ও তামিল অভিনেতা অরুণ বিজয় গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন।

ভারতের পাঁচ থেকে ছয় হাজার প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে ‘সাহো’। শুধু হিন্দি ভার্সনই মুক্তি পেয়েছে সাড়ে তিন হাজার প্রেক্ষাগৃহে। বিশ্বের অন্যান্য দেশের এক থেকে দুই হাজার প্রেক্ষাগৃহেও মুক্তি পাচ্ছে ছবিটি। ছবিতে আরো অভিনয় করেছেন জ্যাকি শ্রফ, চাঙ্কি পান্ডে, মন্দিরা বেদি ও মহেশ মাঞ্জরেকার।

এদিকে বাণিজ্য বিশ্লেষক রমেশ বালা বলেছেন, ভারতে ‘বাহুবলি টু’ সর্বোচ্চ আয় করা সিনেমা। ‘বাহুবলি টু’র পরে প্রভাসের নতুন ছবি ‘সাহো’। সে কারণে প্রত্যাশাও গগনচুম্বী। কয়েকটি ভাষায় মুক্তি পাচ্ছে এ ছবি। ৩০ আগস্ট তেলেগু রাজ্যের এক হাজার ৫০০ প্রেক্ষাগৃহ ও তামিলনাড়ুর ৫৫০ প্রেক্ষাগৃহে ছবিটি মুক্তি পাচ্ছে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads