• মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর ২০১৯, ২৭ কার্তিক ১৪২৬
ads

বলিউড

কাস্টিং কাউচ নিয়ে মুখ খুললেন রিচা চাড্ডা

  • বিনোদন ডেস্ক
  • প্রকাশিত ১৮ অক্টোবর ২০১৯

বলিউডে অন্য ধারার অভিনেত্রী রিচা চাড্ডা। মাসান, গ্যাংস অব ওয়াসেপুর, ফুকরে রিটার্নস, রামলীলা, সরবজিত-এর মতো একাধিক সফল ছবির সহযোদ্ধা তিনি। বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে কাস্টিং কাউচের অভিজ্ঞতা এর আগে প্রথম সারির অনেক অভিনেত্রীর কাছ থেকেই শোনা গিয়েছে। এবার এ প্রসঙ্গে মুখ খুললেন অভিনেত্রী রিচা চাড্ডা। বলিউডে প্রতিষ্ঠিত অভিনেত্রী হয়েও একাধিকবার কাস্টিং কাউচের মুখে পড়তে হয়েছে তাকে।

রিচা চাড্ডা জানান, প্রথমদিকে তিনি এই ধরনের প্রস্তাব বুঝতে পারতেন না। কিন্তু পরে যখন অভিনেত্রী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পরও সিনেমা জগতের ক্ষমতাবান ব্যক্তিদের কাছ থেকে এ ধরনের প্রস্তাব আসত, তখন বেশ অবাকই হতেন তিনি। তবে একটা দীর্ঘ সময় ধরে এসব ঘটনায় চুপ করেও থাকতে হয়েছে।

কাস্টিং কাউচ প্রসঙ্গে রিচা বলেছেন, ‘এই ধরনের প্রস্তাব ফেরানোর ফল কী হতে পারে তা জেনেও অনেক সময় না বোঝার ভান করে এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করতাম আমি। কিন্তু তাতে করে লাভ কিছুই হয়নি। ফলস্বরূপ কাজ করার পরও আমার পারিশ্রমিকের চেক বাউন্স করেছে। আমাকে হূতিক রোশনের মায়ের ভূমিকায় অভিনয় করতে বলা হয়েছে। এমনকি কাজ দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েও শেষ মুহূর্তে দেখেছি অন্য কেউ সেই কাজ পেয়ে গিয়েছে।’

রিচা আরো জানান, মিটু আন্দোলন নিয়ে যখন মুম্বাইয়ের সিনেজগৎ তোলপাড়, সেই সময়েও ইন্ডাস্ট্রির বেশ কয়েকজন ব্যক্তি বহাল তবিয়তে সুবিধা নিয়ে গিয়েছেন। আর স্পষ্টবাদী আর দুর্মুখ হওয়ার কারণে তিনি একের পর এক কাজ হারিয়েছেন। ‘মাসানে’র জন্য তিনি কান আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে গিয়েছেন। তার পরও কাজ পাওয়ার জন্য যদি তাকে এসব প্রস্তাবে রাজি হতে হয়, তবে সেসব কাজ না করাই শ্রেয়!

তথাকথিত বাণিজ্যিক ধারার ছবিতে অপেক্ষাকৃত কম দেখা যায় তাকে। এ প্রসঙ্গে রিচা বলেন, ‘রামলীলা, ফুকরে রিটার্নসের মতো কমার্শিয়াল ছবিতে কাজ করেছি। তবে আমি বোকামার্কা কমার্শিয়াল ছবিতে একদমই কাজ করি না। একটা দৃশ্যের সঙ্গে তার পরবর্তী দৃশ্যের কোনো মিল নেই। আমার অদ্ভুত লাগে এ ধরনের ছবি ।’

বলিউডে নারীপ্রধান ছবি বেশি হচ্ছে। এ ব্যাপারে রিচা বলেন, ‘হ্যাঁ, হচ্ছে বৈকি! তবে এই ছবির সংখ্যা হাতে গোনা। খুব কম ছবিতে নায়িকা নায়ক। আর এখনো সাধারণ মানুষ নারীপ্রধান ছবি মেনে নিতে পারেন না। তাই সোনম কাপুর, কারিনার ছবি ভিরে দ্য ওয়েডিং সম্পর্কে অনেকে উল্টোপাল্টা মন্তব্য করছেন। কই চার ছেলেকে নিয়ে যখন ছবি করা হয়, তখন কেউ তো কোনো মন্তব্য করেন না।’

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads