• বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯, ২৯ কার্তিক ১৪২৬
ads

বলিউড

স্ট্রিট ড্যান্সার নোরা ফাতেহি

  • বিনোদন ডেস্ক
  • প্রকাশিত ০১ নভেম্বর ২০১৯

দিলবারকন্যা হিসেবে বলিউডে খ্যাতি তার। জন আব্রাহাম অভিনীত ‘সত্যমেভ জয়তে’ ছবিতে ‘দিলবার দিলবার’-এ বেলি ড্যান্স দিয়ে মুগ্ধ করেন সবাইকে। এর পরের গল্প খালি সফলতার। বলিউডে এখন অন্যতম সফল অভিনেত্রী ও ড্যান্সারদের তালিকায় যাদের নাম উঠে আসে, তাদের মধ্যে নোরা ফাতেহি অন্যতম। দিনকে দিন বলিউডে তার নিজের পায়ের তলার মাটি শক্ত হচ্ছে।

নাচের মানুষ বলিউড অভিনেত্রী নোরা ফাতেহি। আইটেম গানে তার উপস্থিতি দর্শকের বুকে কাঁপন ধরায়। তার প্রমাণ রেখেছেন দিলবার ও সাকি সাকি গানে নেচে। এবার যুক্ত হলেন ‘স্ট্রিট ড্যান্সার’ নামের একটি ছবিতে। এটি পরিচালনা করছেন রেমো ডি সুজা। নৃত্যধর্মী এ সিনেমায় নোরার সহশিল্পী হিসেবে রয়েছেন বরুণ ধাওয়ান ও শ্রদ্ধা কাপুর। টি সিরিজের ব্যানারে ছবিটি আগামী বছর মুক্তির মিছিলে রয়েছে। এ নিয়ে সম্প্রতি ভারতীয় গণমাধ্যমকে নোরা বলেন, ‘নাচতে আমার ভালো লাগে। সেটা সিনেমায় হোক কিংবা স্টেজে। আর রেমো স্যারের মতো একজন মানুষ আমাকে সিনেমার প্রস্তাব দিয়েছে; যাকে না বলা আমার পক্ষে সম্ভব নয়।’

এদিকে আগামী মাসেই মুক্তি পাচ্ছে নোরার নতুন ছবি ‘মারজাভান’। ইতোমধ্যে এ সিনেমার দুটি গান সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আলোড়ন তৈরি করেছে। এ ছবি মূলত ১৯৮৬ সালে মুক্তি পাওয়া ‘জানবাজ’ সিনেমার রিমেক। ‘মারজাভান’ ছবিতে নোরার পাশাপাশি অভিনয় করেছেন সিদ্ধার্থ মালহোত্রা। ‘জানবাজ’-এ খ্যাতিমান অভিনেত্রী রেখা ‘পেয়ার দো পেয়ার লো’ গানের তালে নেচেছিলেন। এবার ‘দিলবার-কন্যা’ খ্যাত নোরা ‘মারজাভান’ ছবিতে সেই গানের তালে নেচেছেন। অনিল কাপুর, শ্রীদেবী, ডিম্পল কাপাডিয়া, ফিরোজ খান ও শক্তি কাপুর ‘জানবাজ’ ছবির প্রধান চরিত্রগুলোতে অভিনয় করেছিলেন। ওই ছবিতে ‘পেয়ার দো পেয়ার লো’ গানটি গেয়েছিলেন স্বপ্না মুখার্জি। ইন্ডিভার আর সংগীত আয়োজনে ছিলেন কল্যাণী আনন্দজী গানটি লিখেছেন। এর আগেও ওই গানটি রিমেক করা হয়েছে। ২০১১ সালে অক্ষয় কুমার, ববি দেওল ও ইরফান খান অভিনীত ‘থ্যাংক ইউ’ ছবিতে গানটি রিমেক হয়। অমিতাভ ভট্টাচার্যের লেখায় মিকা সিংয়ের গাওয়া গানটি ওই সময়ে ব্যাপক সাড়া ফেলে।

‘রোযার : দ্য টাইগার্স অব দ্য সুন্দরবন’স’ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে নোরার বলিউডে অভিষেক হয়। এরপর তিনি পুরী জগন্নাথের তেলেগু চলচ্চিত্র টেম্পারে একটি আইটেম গানে পারফর্ম করেন। চলতি বছর তিনি টি সিরিজের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হওয়ার পর থেকেই আলোচনায় আসেন।

তবে তার এই সাফল্য সহজে আসেনি। সম্প্রতি নিজের সেই পরিশ্রমের দিনগুলোর দিকে ফিরে তাকিয়ে নস্টালজিক হয়ে পড়েন নোরা ফাতেহি। তিনি বলেন, প্রথমে যখন ভারতে আসি তখন পকেটে ছিল মাত্র পাঁচ হাজার টাকা। বলিউডে স্থান করে নেওয়া কখনোই সহজ ছিল না। তার ওপর একজন কানাডার বাসিন্দা হিসেবে নতুন দেশে এসে মানিয়ে নেওয়া অনেকটাই কঠিন ছিল। বলিউডে কাজ খোঁজার দিনগুলোর কথা মনে করতে গিয়ে আবেগঘন হয়ে পড়েন অভিনেত্রী।

ভারতীয় গণমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে নোরা বললেন, যে এজেন্সির সঙ্গে মুম্বাইতে কাজ করতাম, তারা সপ্তাহে মাত্র তিন হাজার টাকা দিত। সেই সীমিত টাকাতেই মুম্বাইয়ের মতো শহরে দিনের পর দিন স্ট্রাগল করেছেন আজকের হার্টথ্রুব। বর্তমানে তিনি শুধু একটি গানেই কোমর দোলাতে নেন কমপক্ষে ৪০ লাখ টাকা।

কিন্তু শত কষ্টের মধ্যেও নিজের প্যাশনকে ভুলে যাইনি বলেও জানান নোরা। দিনের পর দিন নাচের অভ্যাস করেছেন। চালিয়ে গেছেন শরীরচর্চা। একের পর এক অডিশনে গেছেন তিনি। রিয়েলিটি শোতেও অংশ নিয়েছেন। অবশেষে সুযোগ পান মিউজিক ভিডিওতে কাজ করার। সেই ভিডিও থেকেই মেলে জনপ্রিয়তা। আর আজ বলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় ড্যান্সারদের তালিকায় শীর্ষে তার নাম।

সাকি সাকি, দিলবার, কামারিয়ার মতো গানে তার নাচে অভিভূত হয়ে গেছেন দর্শকরা। এভাবেই ধীরে ধীরে বলিউডে নিজের স্থান পাকা করেছেন নোরা।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads