• বৃহস্পতিবার, ৬ আগস্ট ২০২০, ২২ শ্রাবণ ১৪২৭
ads
অনলাইন ক্লাসে সাড়া নেই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের

প্রতিনিধির পাঠানো ছবি

ক্যাম্পাস

অনলাইন ক্লাসে সাড়া নেই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের

  • ঢাবি প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ১১ জুলাই ২০২০

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের নির্দেশনা অনুযায়ী এই মাসের ৭ তারিখ থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সবগুলো বিভাগ, ইনস্টিটিউটে অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রম পুরোদমে শুরু হয়েছে। করোনার বন্ধে বাংলাদেশ গবেষণা ও শিক্ষা নেটওয়ার্কের (বিডিরেন) ডেটা সেন্টারের জুম অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমে অনলাইনে শিক্ষা কার্যক্রম চালাচ্ছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ দেশের ১৪২টি পাবলিক ও প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়। কিন্তু এতে শিক্ষণার্থীদের উপস্থিতি হতাশাজনক। সাধারণত শ্রেণী উপস্থিতি ৮০-৯০% থাকলেও অনলাইন ক্লাসে এই উপস্থিতি ৩০% এর বেশি নয়। কোনো কোনো বিভাগে ১০-১২% এর সর্বনিম্ন উপস্থিতিও রেকর্ড করা হয়েছে।

কিন্তু উপস্থিতি এত কম কেন, এ ব্যাপারে জানতে চাইলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন শিক্ষক বলেন, "ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আশিভাগ শিক্ষার্থীই গ্রামের নিম্ন মধ্যবৃত্ত পরিবারের সন্তান। করোনার কারণে সবাই এই মুহূর্তে বাড়িতে অবস্থান করছে। সেখানে নেটওয়ার্ক ব্যবস্থা ভালো নয়। আর চলতি বছরের বাজেটে মোবাইল কলচার্জ ও ইন্টারনেট ব্যবহারের উপর সরকারের উচ্চ ভ্যাট নির্ধারণের প্রভাব অনলাইন ক্লাসে পড়ছে।"

উপস্থিতি কম থাকার বিষয়ে মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী সাদমান বলেন, "বিজ্ঞান অনুষদের ক্লাস প্রাকটিক্যাল নির্ভর। অনলাইনে সেটা কোনোভাবেই সম্ভব নয়। প্রাক্টিক্যালের বদলে কলা বা বাণিজ্য অনুষদগুলোর মত নোট শিট নির্ভর হলে হয়তো উপস্থিতি কিছুটা বৃদ্ধি পেতো।"

নতুন এই প্ল্যাটফর্মে (অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রম) এখনও কিছু সীমাবদ্ধতা রয়েছে স্বীকার করে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেন, "অল্প সময়ের মধ্যে আমরা সেই সীমাবদ্ধতা কাটিয়ে উঠে নতুন এই বাস্তবতার সাথে অভ্যস্ত হয়ে উঠব। করোনা পরবর্তী সময়েও স্বাভাবিক শিক্ষা কার্যক্রমের সাথে অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রম চলমান থাকবে।"

উল্লেখ্য, বন্ধের সময়ে অনলাইনে একাডেমিক কার্যক্রম চালানোর আহবান জানিয়ে গত ২৩ মার্চ দেশের সব পাবলিক ও প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য নির্দেশনা জারি করে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads