• মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১ কার্তিক ১৪২৪
ads
পণ্যমূল্য আরও বাড়ার শঙ্কা এফবিসিসিআইয়ের

দেশের চলমান পরিস্থিতি নিয়ে গতকাল সংবাদ সম্মেলন করে এফবিসিসিআই

ছবি -বাংলাদেশের খবর

পণ্যবাজার

পণ্যমূল্য আরও বাড়ার শঙ্কা এফবিসিসিআইয়ের

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ০৬ আগস্ট ২০১৮

এফবিসিসিআই সভাপতি মো. শফিউল ইসলাম (মহিউদ্দিন) বলেছেন, রফতানি প্রবৃদ্ধি এবং রেমিট্যান্স প্রবাহ মন্দা থেকে ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছে দেশ। ঠিক সেই সময় অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি কোনোভাবেই কাম্য হতে পারে না। বিশেষ করে বর্তমান আমদানি-রফতানি পরিস্থিতি, কর্মসংস্থান, স্থিতিশীলতার বিষয় বিবেচনায় রেখে যেকোনো কর্মসূচি পরিচালনা করা প্রয়োজন বলে এফবিসিসিআই মনে করে।

দেশের চলমান পরিস্থিতি নিয়ে এফবিসিসিআই গতকাল এক জরুরি সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে। এফবিসিসিআই সম্মেলনকক্ষে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে প্রতিষ্ঠানের সভাপতি এক লিখিত বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

তিনি আরো জানান, দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন, জিডিপি প্রবৃদ্ধি সমুন্নত রাখা, রফতানি বাণিজ্য সচল রাখতে, বিনিয়োগ উৎসাহিত করতে তারা বিভিন্নভাবে উদ্যোগ নিয়েছেন। এ পরিস্থিতিতে পরিবহন ধর্মঘট বিনিয়োগ সম্ভাবনা এবং দেশের ভাবমূর্তিতে নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে।

ছাত্র আন্দোলন এবং পরিবহন ধর্মঘটে যান চলাচল বন্ধ থাকায় সব নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য সরবরাহ বিঘ্নিত হওয়ায় মূল্যস্ফীতির হার আবারো বৃদ্ধির আশংকা তৈরি হয়েছে। ফলে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী, উদ্যোক্তারা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে বলে ধারণা এফবিসিসিআইয়ের। একই সঙ্গে চট্টগ্রামসহ অন্যান্য সব বন্দরের আমদানি-রফতানি কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে। এতে আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে দেশের ব্যবসা-বাণিজ্যে স্থবিরতা দেখা দিয়েছে।

এফবিসিসিআই সভাপতি আরো বলেন, ব্যবসায়ীরা পরিশ্রমের মাধ্যমে দেশের অর্থনীতিকে একটি শক্ত পরিকাঠামোর ওপর প্রতিষ্ঠিত করার চেষ্টা করছেন। এরই ধারাবাহিকতায় বিভিন্ন সম্ভাবনাময় দেশের উচ্চ পর্যায়ের বাণিজ্যিক প্রতিনিধিদল বাংলাদেশ সফর করছেন এবং তাদের সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে বাংলাদেশে বিদ্যমান দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য ও অর্থনৈতিক সম্পর্ক উন্নয়নের লক্ষ্যে সরকার এবং বেসরকারি খাত চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। দেশি-বিদেশি বিনিয়োগকারীরা বিনিয়োগে আকৃষ্ট হচ্ছেন। এ অবস্থায় চলমান আন্দোলন দেশের বিনিয়োগ সম্ভাবনা এবং দেশের ভাবমূর্তিতে নেতিবাচক প্রভাব পড়বে বলে ব্যবসায়ী নেতারা মনে করেন। ২০১৬ সালের জুলাাইয়ে গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারিতে সংঘটিত দুঃখজনক ঘটনার ফলে জাপান ও আমেরিকাসহ বিভিন্ন দেশ বাংলাদেশে তাদের নাগরিকদের ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা জারি করে। এর থেকে বের হওয়ার চেষ্টার মধ্যে এ ধরনের আন্দোলন কিছুতেই কাম্য নয়। ইতোমধ্যে অনেক বিদেশি ক্রেতা বাংলাদেশ সফর বাতিল করেছেন।

গত ২৯ জুলাই বাস দুর্ঘটনায় দুই স্কুল শিক্ষার্থীর মৃত্যুতে এফবিসিসিআইয়ের পক্ষ থেকে সমবেদনা প্রকাশ করেন শফিউল ইসলাম (মহিউদ্দিন)।

এ বিষয়ে তিনি বলেন, নিরাপদ সড়কের দাবিতে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের আন্দোলনকে  তারা প্রথম থেকেই সমর্থন দিয়ে আসছেন। আন্দোলনের বিষয়টিকে ইতিবাচকভাবে সমর্থন দিয়ে সরকার ছাত্রদের সব দাবি সুরাহার জন্য সম্ভাব্য বেশকিছু দৃশ্যমান পদক্ষেপ নিয়েছে। পাশাপাশি ভবিষ্যতে এ বিষয়ে আইন প্রণয়নসহ আরো কঠোরভাবে প্রশাসনিক পদক্ষেপ নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছে।

মূলত অপ্রাপ্তবয়স্ক এবং অদক্ষ চালকের কারণে প্রায় সড়ক দুর্ঘটনা ঘটছে জানিয়ে এফবিসিসিআই সভাপতি বলেন, ‘আমরা তৈরি পোশাক খাতকে সম্পূর্ণ শিশুশ্রম মুক্ত করতে সক্ষম হয়েছি। শ্রম আইনের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে তৈরি পোশাক খাতের ন্যায় পরিবহনসহ অন্যান্য সব খাতেও শিশুশ্রমের ব্যবহার বন্ধ হওয়া প্রয়োজন। এটি অনভিপ্রেত দুর্ঘটনা এড়াতে সহযোগিতা করবে।’

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads