• রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১ কার্তিক ১৪২৪
ads
‘ঈদের পর কমবে পেঁয়াজের দাম’

৪০ থেকে ৪৫ টাকা থেকে বেড়ে পেঁয়াজের দাম উঠেছে কেজিপ্রতি ৬০ টাকায়

সংরক্ষিত ছবি

পণ্যবাজার

‘ঈদের পর কমবে পেঁয়াজের দাম’

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ১৩ আগস্ট ২০১৮

মাসখানেক আগে ৪০ থেকে ৪৫ টাকায় বিক্রি হয়েছে এমন পেঁয়াজের দাম উঠেছে কেজিপ্রতি ৬০ টাকায়। মাসের ব্যবধানে দেশি পেঁয়াজের দাম ৩০ থেকে ৫০ শতাংশ পর্যন্ত বেড়েছে। চাহিদার বিপরীতে পর্যাপ্ত জোগান থাকায় পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধিকে অস্বাভাবিক বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

অনেকের মতে, কোরবানির ঈদ সামনে রেখে অস্বাভাবিক মুনাফা করতে বিক্রেতারা মজুত বৃদ্ধি করায় পণ্যটির দাম বাড়ছে। এ অবস্থায় দাম নিয়ন্ত্রণে কোনো উদ্যোগ না থাকলেও ঈদের পরে পেঁয়াজের দাম কমে আসবে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। গতকাল রোববার সচিবালয়ে বাণিজ্যমন্ত্রীর দফতরে মন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেন ঢাকায় নিযুক্ত চীনের রাষ্ট্রদূত ঝ্যাং জু। বৈঠক শেষে সাংবাদিকরা পেঁয়াজের দাম অস্বাভাবিক বৃদ্ধির প্রসঙ্গ তুললে মন্ত্রী বলেন, ভারতে অতিবৃষ্টির কারণে অনেক পেঁয়াজ নষ্ট হয়ে গেছে। বাজারে তার একটা প্রভাব পড়েছে। কোরবানির ঈদের কেনাকাটার প্রভাবও রয়েছে। তবে ঈদের পর পেঁয়াজের দাম কমে যাবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, দেশে আমদানি করা পেঁয়াজের বড় অংশ আসে ভারত থেকে। সে দেশের বাজারে পেঁয়াজের দাম এখন স্থিতিশীল। আমদানি কার্যক্রমেও কোনো বাধা নেই। ২০১৬ সালে সরকার পেঁয়াজ আমদানির ওপর থেকে শুল্ক প্রত্যাহার করে নেয়।

দেশের বাজারে পেঁয়াজের মজুত পর্যাপ্ত। তারপরও এক সপ্তাহ ধরে বেড়েই চলেছে এ নিত্যপণ্যের দাম। এদিকে, এক দিনের ব্যবধানে দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দরে পেঁয়াজের পাইকারি দাম কমেছে কেজিতে ৩ টাকা। এক দিন আগে ২৮ থেকে ৩০ টাকা দরে বিক্রি হয়েছে এমন পেঁয়াজের দাম নেমে এসেছে ২৫ থেকে ২৭ টাকায়। ওই বন্দর দিয়ে প্রতিদিন ৬০ থেকে ৭০ ট্রাক করে পেঁয়াজ আসছে।

 একই পেঁয়াজ খুচরা বাজারে বিক্রি হচ্ছে ৪০ টাকা কেজিদরে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads