• সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৪
ads
সমঝোতা না হলে আন্দোলন : মওদুদ 

বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ

সংরক্ষিত ছবি

সারা দেশ

সমঝোতা না হলে আন্দোলন : মওদুদ 

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ০৮ জুলাই ২০১৮

নিরপেক্ষ সহায়ক সরকারের অধীনে জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলে তাতে অংশ নেবে বিএনপি। কিন্তু এ বিষয়ে সরকারের সঙ্গে সমঝোতা না হলে আন্দোলনে যাওয়ার হুশিয়ারি দিয়েছেন বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ। গতকাল শনিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে বাংলাদেশ জাতীয় মানবাধিকার পরিষদের আয়োজনে ‘বর্তমান প্রেক্ষাপটে মানবাধিকার ও ভোটের অধিকার’ শীর্ষক এক মতবিনিময় সভায় তিনি এ কথা বলেন।

মওদুদ বলেন, ‘বিএনপি নির্বাচনে আছে, থাকবে। আগামী নির্বাচন হতে হবে নিরপেক্ষ সহায়ক সরকারের অধীনে। এ বিষয়ে সমঝোতা না হলে আন্দোলনের কোনো বিকল্প নেই।’ দেশের উচ্চতম আদালতের আদেশকে অকার্যকর করার জন্য নিম্ন আদালতের ম্যাজিস্ট্রেটকে ব্যবহার করা হচ্ছে অভিযোগ করে তিনি বলেন, ‘পাঁচ মাস হয়ে গেছে খালেদা জিয়া কারাগারে। তাকে এখনো মুক্ত করা যায়নি। কারণ নিম্ন আদালত সম্পূর্ণরূপে নির্বাহী বিভাগের অধীনে পরিচালিত হচ্ছে। বিএনপি এখনো আইনি প্রক্রিয়ায় আছে। যদি আইনি প্রক্রিয়ায় মুক্তি না আসে তাহলে কঠোর আন্দোলন ছাড়া বিকল্প নেই। আইনের মাধ্যমে না হলে রাজপথই একমাত্র পথ।’

এ সময় মওদুদ নির্বাচন কমিশনকে ‘নির্লজ্জ ও দলীয়’ উল্লেখ করে কড়া সমালোচনা করেন। তবে একজন কমিশনার সাহসী আছেন বলেও মন্তব্য করেন বিএনপির এই জ্যেষ্ঠ নেতা।

কোটা সংস্কার আন্দোলন প্রসঙ্গে মওদুদ বলেন, ‘কোটা সংস্কার আন্দোলনের সঙ্গে কোনো রাজনৈতিক দল জড়িত নয়। এটা সাধারণ শিক্ষার্থীদের স্বতঃস্ফূর্ত আন্দোলন। সরকারি চাকরিতে নিয়োগের ১০০টির মধ্যে ৫৬টি যদি কোটায় চলে যায় তাহলে থাকে কী? বাকি যে ৪৪ শতাংশ নিয়োগ পায়, তার মধ্যে রাজনৈতিক প্রভাব খাটানো হয়।’ তিনি বলেন, ‘কত কষ্ট করে তাদের (শিক্ষার্থী) বাবা-মা পড়ালেখা করান। অথচ তারা কোটার জন্য চাকরি পায় না। প্রধানমন্ত্রী শিক্ষার্থীদের দেওয়া কথা রাখেননি। উল্টো তাদের ওপর আক্রমণ চালানো হচ্ছে।’

মতবিনিময় সভায় আরো বক্তব্য রাখেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু, নির্বাহী কমিটির সদস্য খালেদা ইয়াসমিন, আবু নাসের মোহাম্মাদ রহমাতুল্লাহ প্রমুখ।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads