• শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২১ কার্তিক ১৪২৪
ads

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন গ্রাম পুলিশের আহত মা ও স্ত্রী

ছবি : বাংলাদেশের খবর

সারা দেশ

সুন্দরগঞ্জে গ্রাম পুলিশের জমি দখলের চেষ্টা

  • সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ২৫ আগস্ট ২০১৯

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে গ্রাম পুলিশের জমি জবর দখল করার সময় বাঁধা প্রদান করায় তার পরিবারের ৩ সদস্যকে মারপিট করে আহত করা হয়েছে। এ ঘটনায় গ্রাম পুলিশ মাহবুর রহমান থানায় একটি অভিযোগ দাখিল করেছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার তারাপুর ইউনিয়নের চাচিয়া মীরগঞ্জ (মেছনি পাড়া) গ্রামের মৃত আজাহার আলীর পুত্র গ্রাম পুলিশ মাহাবুর রহমানের কয়েক দশক থেকে ভোগ দখলীয় আমন চারা লাগানোর জন্য চাষকৃত ৫০ শতক জমি জবর দখল করার জন্য একই গ্রামের মৃত আশরাফ আলীর পুত্র আব্দুল মজিদ গং গত সোমবার জমিতে গিয়ে আমন চারা রোপন করতে থাকে। এসময় গ্রাম পুলিশ মাহাবুরসহ তার দু’ভাই কাজের জন্য বাইরে থাকায় তার পরিবারের মহিলা সদস্যরা বাঁধা প্রদান করে। এতে জবর দখলকারীরা ক্ষিপ্ত হয়ে মাহাবুরের মা মমিনা বেগম, স্ত্রী সামিনা বেগম ও কিশোর পুত্র ছাইফুল ইসলামকে বেধরক মারপিট করে।

স্থানীয় লোকজন আহতদেরকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান। আহতদের মধ্যে মমিনা বেগম ও সামিনা বেগমের অবস্থা গুরুতর বলে জানা গেছে। উল্লেখ্য ইতোমধ্যে ওই জমির ঘটনায় আব্দুল মজিদ আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। এরপর থেকে জমিটি অবৈধভাবে দখলে নেয়ার পায়তারা করলে মাহাবুর রহমান গত ২০১৭ সালের ২৬ সেপ্টেম্বর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার দপ্তরে একটি অভিযোগ দাখিল করেন। এ ঘটনায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শান্তিশৃঙ্খলা বজায় রাখতে আব্দুল মজিদ গংকে নোটিশ করে ডেকে নেন।

এরপর আদালতে চলমান মামলা নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত মাহাবুরের শান্তিপূর্ণ ভোগদখলীয় জমিতে কোন বাঁধার সৃষ্টিসহ কোন প্রকার হুমকি ধামকি দিবে না মর্মে আব্দুল মজিদ গং লিখিত অঙ্গীকারনামা প্রদান করেন।

এব্যাপারে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই সেলিম রেজার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানা- ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা অফিসিয়াল কাজে বাইরে থাকায় মামলার তদন্ত করা সম্ভব হয়নি। তিনি আসলে এব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। থানা অফিসার ইনচার্জ এসএম আব্দুস সোবহান জানান, আমি অফিসিয়াল কাজে বাইরে আছি, ফিরে এসে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads