• শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯, ২ কার্তিক ১৪২৬
ads
জোড়া লাগানো শিশুর লিঙ্গ না বুঝেই নাম রাখলেন মা-বাবা

প্রতিনিধির পাঠানো ছবি

সারা দেশ

জোড়া লাগানো শিশুর লিঙ্গ না বুঝেই নাম রাখলেন মা-বাবা

  • গুরুদাসপুর (নাটোর) প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯

মায়ের পেটে জন্ম নেওয়া যমজ শিশুর প্রাণ আলাদা থাকলেও ছোট শিশুটির কোনো পা নেই। এমনকি তার মলদ্বার নেই, নেই মূত্রনালীও। শরীরে প্রাণের সঞ্চার থাকলেও মুখে শব্দ নেই। আবার তার মাথার পাশে মাথার সমান টিউমার রয়েছে। অন্যদিকে বড় পুরুষ শিশুটির অবয়ব সব ঠিক আছে। কান্না করে, খেতেও পারে। কিন্তু ছোট শিশুটি দুধ খেলেও মলদ্বার মূত্রনালী না থাকায় মুখ দিয়েই বমি করে দেয়। শিশু দুটি একে-অন্যের বুক ও পেটের সঙ্গে যুক্ত রয়েছে।

গুরুদাসপুর পৌর সদরের নারায়ণপুর মহল্লার দিনমজুর মোহাম্মদ আলীর স্ত্রী রুপালি খাতুন (২২) গত শনিবার বিকালে স্থানীয় হাজেরা ক্লিনিকে ডা. আমিনুল ইসলাম সোহেলের সফল অপারেশনের মাধ্যমে ওই যমজ শিশু দুনিয়ার আলো দেখতে পায়। অপেক্ষাকৃত বড় শিশুটি ছেলে বোঝা গেলেও ছোট শিশুটির কোনো লিঙ্গই বোঝা যাচ্ছে না। বিয়ের সাত বছর পর রুপালি খাতুনের এবারই প্রথম সন্তান প্রসব করেন। বাবা মোহাম্মদ আলী বড় শিশুটির নাম রেখেছেন মো. আবুজর গিফারী। ছোট শিশুটির লিঙ্গ বোঝা না গেলেও তার নাম রাখা হয়েছে আবু দারদা।

চিকিৎসক ডা. আমিনুল ইসলাম সোহেল জানান, এ অবস্থায় ঢাকায় নিয়ে অপারেশনের মাধ্যমে তাদের আলাদা করতে না পারলে দুজনই মারা যেতে পারে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads