• শুক্রবার, ২২ নভেম্বর ২০১৯, ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
ads
কুলাউড়া হাসপাতালে ৬৬ নরমাল ডেলিভারির রেকর্ড

প্রতিনিধির পাঠানো ছবি

সারা দেশ

কুলাউড়া হাসপাতালে ৬৬ নরমাল ডেলিভারির রেকর্ড

  • কুলাউড়া (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ০৬ নভেম্বর ২০১৯

কুলাউড়া উপজেলা হাসপাতালে গত অক্টোবর মাসে নরমাল ডেলিভারি মাধ্যমে ৬৬টি শিশুর জন্ম দিয়ে নতুন রেকর্ড সৃষ্টি করেছে। এটি ৫০ শয্যা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের নতুন মাইলফলক। এ মাসে একদিনে নরমাল ডেলিভারির মাধ্যমে ৭টি শিশুর জন্মও প্রথম।

এর আগে, একই দিনে ৪ শিশু জন্মের রেকর্ড ছিলো এ হাসপাতালে। যার ফলে সরকারী হাসপাতালের সেবায় সাধারণ মানুষের মাঝে বেশ ইতিবাচক প্রভাব ফেলেছে।

জানা যায়, মাতৃমৃত্যু এবং শিশু মৃত্যুহার কমানোর জন্য প্রাতিষ্ঠানিক ডেলিভারির কোনো বিকল্প নেই, এমন লক্ষ্যে বর্তমান সরকারের স্বাস্থ্য বিভাগ কাজ করেছে। স্বাস্থ্য বিভাগের সে লক্ষ্যকে বাস্তবে রূপ দিতে কুলাউড়া উপজেলা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ডেলিভারির বিষয়ে বিশেষ কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করে। তারই আলোকে চলতি বছরের মার্চ মাস থেকে গড়ে ৫০টি নরমাল ডেলিভারি নিশ্চিত করে আসছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

কর্তৃপক্ষ ছাড়াও স্থানীয়দের মতে, এটি হাসপাতালের নতুন মাইলফলক। আর এ  উপলক্ষে রোববার হাসপাতালের হলরুমে কেক কেটে আনন্দ ভাগাভাগি করেন কর্তব্যরতরা।

হাসপাতালের নার্সিং সুপারভাইজার মনি দিপিকা দেব জানান, অক্টোবর মাসে হাসপাতালে মোট ৮৫ জন প্রসূতি রোগী ভর্তি হয়েছিলেন। যার মধ্যে ৬৬টি জন প্রসূতির নরমাল ডেলিভারির মাধ্যমে শিশুর জন্ম প্রদাণে সক্ষম হয়েছি। বিভিন্ন সমস্যার কারনে ৭জন প্রসূতিকে অন্যত্র স্থানান্তর করা হয়েছে এবং ১২ জন প্রসূতির এখনও সময় না হওয়ায় প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। ওই মাসে একদিনে (১৬ অক্টোবর) নরমাল ডেলিভারির মাধ্যমে ৭টি নবজাতকের জন্ম করাতেও আমরা সক্ষম হয়েছি।

কুলাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ নূরুল হক জানান, বর্তমান সরকারের ভিসন মাতৃমৃত্যু এবং শিশু মৃত্যুহার কমানোর জন্য প্রাতিষ্ঠানিক ডেলিভারি। যার কোনো বিকল্প নেই।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads