• শুক্রবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
দৌলতদিয়া ইউপি সদস্য যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে স্ত্রীকে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ

ফাইল ছবি

সারা দেশ

দৌলতদিয়া ইউপি সদস্য যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে স্ত্রীকে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ

  • গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ১৮ নভেম্বর ২০১৯

গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের সদস্য ও দৌলতদিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি রাশেদুল ইসলাম পান্নু মোল্লার (৪৫) বিরুদ্ধে সাবেক যৌনকর্মী স্ত্রীকে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সোমবার বিকেলে এ ঘটনায় গোয়ালন্দ ঘাট থানায় মামলা হয়েছে। রাশিদুল ইসলাম পান্নু মোল্লা গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া ইউনিয়নের বেপারী পাড়া গ্রামের ইয়াকুব মোল্লা ওরফে টোকাই মোল্লার ছেলে।

নির্যাতনের শিকার রাশিদা বেগম জানান, তিনি প্রায় ১০/১২ বছর দৌলতদিয়া যৌনপল্লীতে বসবাস করে পতিতাবৃত্তি করতেন। কয়েক বছর আগে স্বাভাবিক জীবন যাপনের প্রতিশ্রুতি দিয়ে রাশেদুল ইসলাম পান্নু মোল্লা তাকে বিয়ে করেন। বিয়ের পর ১০/১২ বছরের উপার্জিত সমস্ত টাকা-পায়সা তার হাতে তুলে দেন তিনি। এছাড়া দৌলতদিয়া যৌনপল্লীতে তার নামে একটি বাড়ি রয়েছে। ওই বাড়ির ভাড়ার টাকাও রাশেদুল ইসলাম পান্নু মোল্লা ভোগ করেন। কিছুদিন পর আমার স্বামী রাসেদুল অন্য নারীকে বিয়ে করেন। এরপর থেকে রাশেদুল ইসলাম পান্নু মোল্লা আমার উপর শারীরিক ও মানষিক নির্যাতন শুরু করেন। এর ধারাবাহিকতায় গত ১৫ নভেম্বর আমার স্বামী ও তার অপর স্ত্রী বেলী বেগম আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে চাকু দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। এসময় তিনি চিৎকার করলে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে আহত অবস্থায় গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

এ প্রসঙ্গে রাশেদুল ইসলাম পান্নু মোল্লা জানান, তার স্ত্রীর সঙ্গে পারিবারিক ঝামেলা হয়েছে। তবে তার স্ত্রী যে অভিযোগ করেছে তা সঠিক নয়। তদন্ত করলে এ অভিযোগ মিথ্যে প্রমাণিত হবে বলে তিনি দাবী করেন।

গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি রবিউল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় নির্যাতনের শিকার রাশিদা বেগম বাদি হয়ে সোমবার বিকেলে দুই জনের বিরুদ্ধে গোয়ালন্দ ঘাট থানায় মামলা দায়ের করেছেন। এ বিষয়ে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads