• রবিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১০ ফাল্গুন ১৪২৬
মহাদেবপুরে আদিবাসী ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার ১

আদিবাসী ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তারকৃত খোমেজ উদ্দীন

প্রতিনিধির পাঠানো ছবি

সারা দেশ

মহাদেবপুরে আদিবাসী ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার ১

  • মহাদেবপুর (নওগাঁ) প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ১৮ জানুয়ারি ২০২০

এক আদিবাসী কিশোরীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে খোমেজ উদ্দিন (৫৫) নামে এক বৃদ্ধকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

আজ শনিবার সকালে নওগাঁর মহাদেবপুর থানা পুলিশ তাকে গেপ্তার করে।

গ্রেপ্তারকৃত খোমেজ উদ্দিন উপজেলার রাইগাঁ ইউনিয়নের কুন্দনা গ্রামের কছির উদ্দিনের ছেলে। সে ৪ বছর আগে তার শ্বশুড়বাড়ী এনায়েতপুর বাজারে একটি টিনের ঘুমটিতে পানের দোকান করে আসছে।

ধর্ষণ চেষ্টার শিকার আদিবাসী কিশোরীর মা অভিযোগ করেন যে, তার মেয়ে (১২) এনায়েতপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী। সে গত বৃহস্পতিবার সকাল ৬ টায় প্রাইভেট পড়তে যাবার সময় এনায়েতপুর বাজারে খোমেজ উদ্দিনের দোকানের সামনে পৌঁছলে খোমেজ উদ্দিন তাকে জোড় করে রাস্তা থেকে তুলে তার দোকানের ভেতর নিয়ে গিয়ে দোকানের দরজা বন্ধ করে তার স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেয়াসহ তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। মেয়েটি কান্না শুরু করলে খোমেজ উদ্দীন তাকে বিষয়টি কাউকে না জানানোর হুমকি দিয়ে ছেড়ে দেয়। কাউকে জানালে তাকে হত্যার হুমকি দেয়। ওই দিন মেয়েটি প্রাইভেট না পড়ে বাড়ি ফিরে গিয়ে কাঁদতে থাকে ও স্কুলে যাওয়া বন্ধ করে দেয়। বাড়ীর লোকজন বিষয়টি জানার চেষ্টা করলে পরদিন রাতে সে তার চাচিকে বিষয়টি জানায়। শনিবার সকালে এ ব্যাপারে তার মা বাদী হয়ে মহাদেবপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। থানা পুলিশ বেলা ১০ টায় খোমেজ উদ্দিনকে তার দোকান থেকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে আসে।

এ বিষয়ে মহাদেবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ নজরুল ইসলাম জুয়েল ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, আসামীকে গ্রেপ্তার করে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে ও ভিকটিমকে জবানবন্দীর জন্য বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads