• শনিবার, ৪ এপ্রিল ২০২০, ২১ চৈত্র ১৪২৬
ads
খাবারে চুল পাওয়ায় স্ত্রীর মাথা ন্যাড়া করে স্বামী

ছবি : বাংলাদেশের খবর

সারা দেশ

খাবারে চুল পাওয়ায় স্ত্রীর মাথা ন্যাড়া করে স্বামী

  • শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০

গাজীপুরের শ্রীপুরে যৌতুক দিতে অস্বীকৃতি প্রকাশ করা ও খাবারের সময় ভাতে চুল পাওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে স্ত্রীর মাথা ন্যাড়া করে দেয় এক পাষণ্ড স্বামী। উপজেলার গাজীপুর ইউনিয়নের ফরিদপুর গ্রামে গ্রামে গত ৯ ফেব্রুয়ারি এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পরে এ বিষয়ে ওই নারী শ্রীপুর থানায় স্বামীসহ চারজনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনায় একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। পাষণ্ড স্বামীর নাম সায়েম আহম্মেদ। সে সালেহ আহম্মেদের ছেলে সে।

নির্যাতনে শিকার গৃহবধূর স্বজনরা জানান, গত পাঁচ বছর আগে গাজীপুর ইউনিয়নের ফরিদপুর গ্রামের সালেহ আহমেদের ছেলে সায়েম আহম্মেদের সাথে কাওরাইদ ইউনিয়নের শিমুলতলা গ্রামের মজিবুর রহমানের মেয়ের বিয়ে হয় পারিবারিক ভাবে। তাদের আড়াই বছরের এক ছেলে রয়েছে। তারা আরো জানান সংসারে অভাব থাকায় বিয়ের কিছুদিন পর থেকে ওই গৃহবুধ স্থানীয় নয়নপুর এলাকার অটো স্পিনিং মিলে চাকরি শুরু করেন। বিয়ের পর থেকেই স্বামী সায়েম যৌতুকের দাবিতে (স্ত্রী মুন্নীকে) বিভিন্ন সময় শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করে। পরে গত ৯ তারিখে দুপুরের খাবার খাওয়ার সময় খাবারে মাথার চুল পেয়ে স্বামী সায়েম ক্ষিপ্ত হয়। এ সময়ও যৌতুক নিয়ে বাকবিতণ্ডা হয় তাদের মধ্যে। এক পর্যায়ে স্বামী ক্ষিপ্ত হয়ে স্ত্রীর মাথা ব্লেড দিয়ে ন্যাড়া করে দেয়। এ নির্যাতনে তার স্বজনরা সহায়তা করে। এ সময় জোর করে ঘরে আটকে রাখা হয় তাকে। দুই দিন পরে কৌশলে বাবার বাড়িতে চলে আসে মুন্নী।

অভিযুক্তরা হলো ওই নারীর স্বামী সায়েম আহম্মেদ (২৬), শ্বাশুড়ি জাহানারা বেগম (৪৫), মামাশ্বশুর আতাবুর রহমান (৪২) ও হাবিবুর রহমান (৩৮)।

শ্রীপুর মডেল থানার এসআই মো. এখলাছ উদ্দিন বলেন, মামলার এজাহার ভুক্ত তিন নম্বর আসামি আতাবুর রহমানকে সোমবার রাতে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পরে আদালতে হাজির করলে আদালত জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন। বাকী আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads