• রবিবার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ১০ কার্তিক ১৪২৭
আশুলিয়ায় অপহরণের ৮ ঘন্টা পর ব্যবসায়ী উদ্ধার, আটক ২

প্রতিনিধির পাঠানো ছবি

সারা দেশ

আশুলিয়ায় অপহরণের ৮ ঘন্টা পর ব্যবসায়ী উদ্ধার, আটক ২

  • আশুলিয়া প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ৩০ মার্চ ২০২০

আশুলিয়ায় অপহণের ৮ ঘন্টা পরে আজিজুল ইসলাম নামের এক কাপড় ব্যবসাীয়কে উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ সময় মুক্তিপণের জন্য দাবিকৃত টাকা নিতে আসা দুই অপহরণকারীকে আটক করেছে পুলিশ।

গতকাল রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে আশুলিয়ার পলাশবাড়ি এলাকার হাজী রমজান আলীর মালিকানাধীন বাড়ির নিচতলার একটি কক্ষ থেকে অপহৃত ব্যবসায়ীকে উদ্ধার করা হয়। এর আগে একই দিন দুপুরে আশুলিয়ার বাইপাইল এলাকা থেকে তাকে অপরহণ করা হয়।

অপহৃত আজিজুল ইসলাম আশুলিয়ার গাজীরচটের বাসিন্দা ও সে আশুলিয়ার জামগড়া এলাকায় কাপড়ের ব্যবসা করেন।

আটকরা হলেন, পিরোজপুর জেলার কাউখালি থানার বেকুদিয়া গ্রামের ওমর ফারুকের ছেলে জাহিদুল ইসলাম ও ঢাকা জেলার নবাবগঞ্জের সন্তোষ সরকারের ছেলে সীমান্ত সরকার।

এ ব্যাপারে আশুলিয়া থানার এসআই ওহিদ বেপারী জানান, রোববার দুপুরে আশুলিয়ার বাইপাইল এলাকা থেকে চার অপহরণকারী প্রাইভেটকারের মাধ্যমে ব্যবসায়ী আজিজুল ইসলামকে তুলে নিয়ে যায়। পরে অপহরণকারীরা আজিজুল ইসলামকে বেধড়ক মারধর করে পরিবারের কাছে দেড় লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। এ সময় বিকাশে পাঁচ হাজার টাকা দেয়া হয়। পরে বিষয়টি আশুলিয়া থানায় অবহিত করলে পুলিশ অভিযানে নামে।

তিনি আরও জানান, অপহরণকারীদের বাকি টাকা নগদে দেওয়ার কথা বলে ডেকে এনে কৌশলে তাদের দুই জনকে আটক করা হয়। পরে আটক দুই জনের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে আশুলিয়ার পলাশবাড়ি এলাকার রমজান আলীর মালিকানাধীন বাড়ির নিচ তলার একটি কক্ষ থেকে অপহৃত ব্যবসায়ীকে উদ্ধার করা হয়। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে বাকি অপরণাকরীরা পালিয়ে যায়। পালিয়ে যাওয়া অপরণকারীদের মধ্যে হৃদয় নামের এক অপহরণকারী মূলত এ বাসাটি ভাড়া নিয়েছিলো। সে কক্ষে ব্যবসায়ীকে মুক্তিপণের জন্য নির্যাতন করা হয়।

তিনি আরও বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, অপহরণকারীরা আজিজুলের বিষয়ে আগে থেকেই খোঁজ খবর নেয় এবং সুযোগ বুঝে তাকে অপহরণ করে। এ ঘটনায় অহরণকারীদের বিরুদ্ধে আশুলিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে এবং ঘটনার সাথে জড়িত বাকি অপরণকারীদের আটকের চেষ্টা চলছে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads