• সোমবার, ১ জুন ২০২০, ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫
ads
করোনায় আক্রান্ত হয়ে পালিয়ে নিজ গ্রামে অবস্থান, জানাজানি হলে পাহাড়ে আত্মগোপন

ফাইল ছবি

সারা দেশ

করোনায় আক্রান্ত হয়ে পালিয়ে নিজ গ্রামে অবস্থান,জানাজানি হলে পাহাড়ে আত্মগোপন

  • জয়দেব রানা, আলীকদম (বান্দরবান) প্রতিনিধি:
  • প্রকাশিত ২১ মে ২০২০

সারা দেশ ও পাশ্ববর্তী উপজেলায় যখন করোনা আক্রান্ত পাওয়া যাচ্ছে তখনও করোনা মুক্ত ছিল বান্দরবানের আলীকদম উপজেলা। উপজেলা লকডাউনের ৫৭ দিনের মাথায় বাইরে থেকে করোনায় আক্রান্ত হয়ে পালিয়ে এসেছে দুইজন। প্রথমবারের মত আলীকদমে করোনা রোগী প্রবেশ ও শনাক্ত। করোনা আক্রান্তের তথ্য গোপন করে একজন চকরিয়া আলীকদম হয়ে থানচি ও অন্যজন আলীকদম ১০ কিলো প্রভাত কার্বারী পাড়ায় অবস্থান করছে।

করোনা আক্রান্তরা হলেন আলীকদম প্রভাত কারার্রী পাড়ার বাসিন্দা প্রদীপ ত্রিপুরা ও অন্যজন তার হবু স্ত্রী সোনাতি। 

প্রদীপ ত্রিপুরা কিছুদিন আগে মালুমঘাট এক আত্মীর বাড়ীতে অবস্থান করে।গত মঙ্গলবার মালুমঘাট চকরিয়া হয়ে আলীকদম আসেন প্রদীপ ও সোনাতি ত্রিপুরা। পরে আলীকদম পানবাজার হয়ে ১০ কিলো যায় প্রদীপ ত্রিপুরা ও সোনাতি ত্রিপুরা থানচি যায় বলে জানায় তাদের পরিবহন করা মোটর চালক মো. বাবলূ।

চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ শাহবাজ জানান, স্বশরীরে হাসপাতালে এসে গত ১৬ মে প্রদীপ ত্রিপুরা ও সোনাতি ত্রিপুরা পরীক্ষার জন্য নমুনা দেন।গত ১৯ মে তারা দুইজনসহ চকরিয়া উপজেলার মোট ১৭ জন করোনা পজেটিভ আসে। এখন পর্যন্ত সোনাতি ত্রিপুরার সাথে যোগাযোগ করা যায়নি বলে জানান তিনি।

আলীকদম উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) ডা. মো. মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী জানান, করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংস্পর্শে যারা এসেছে, তাদের সবাইকে হোম কোয়ারান্টাইনে রাখা হবে ও সবার নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হবে।

আলীকদম উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ সায়েদ ইকবাল বলেন, করোনা নিয়ে আলীকদম ব্যক্তির বাড়ী গিয়েছিলাম। কিন্তু তারা পালিয়ে আছে। করোনা আক্রান্ত ব্যক্তির অবস্থান করা গ্রামটি সম্পূর্ণভাবে লকডাউন করা হয়েছে।বিভিন্ন মাধ্যমে খবর পেয়েছি বর্তমানে করোনা আক্রান্ত রোগী একটি জুমে লুকিয়ে আছে। আমরা সেখানে যাচ্ছি। তাকে হোম আইসোলেশনে রাখা হবে। রোগীকে পরিবহন করা মোটর চালককেও হোম কোয়ারান্টাইনে থাকার র্নিদেশনা দেওয়া হয়েছে বলে জানান।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads