• শুক্রবার, ১৪ আগস্ট ২০২০, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭
ads
নরসিংদীতে করোনায় আরো ২ জনের মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত ২৭

ফাইল ছবি

সারা দেশ

নরসিংদীতে করোনায় আরো ২ জনের মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত ২৭

  • নরসিংদী প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ০৪ জুন ২০২০

নরসিংদীতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে আরো দুইজন মৃত্যুবরণ করেছে। আর নতুন করে ২৭ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে ৯ জন। আর করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ৬৪১ জন।

বৃহস্পতিবার সকালে নরসিংদীর সিভিল সার্জন ডা. ইব্রাহিম টিটন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তারা হলেন- মাধবদী শেখেরচরের ফুলতলা এলাকার রিতা পাল (৫৯) ও মাধবদীর আনন্দী এলাকার আবদুল কাদের (৬৫)।

সিভিল সার্জনের কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, গত শুক্রবার করোনাভাইরাসে সংক্রমিত সন্দেহে ৯৩ জনের নমুনা সংগ্রহ করে স্বাস্থ্য বিভাগ। পরে শনিবার রাজধানীর মহাখালীর ইনস্টিটিউট অব পাবলিক হেলথে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। বুধবার রাতে সেসব নমুনা পরীক্ষার ফলাফল এসেছে। এতে নতুন আরও ২৭ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। নতুন আক্রান্ত ২৭ জনের মধ্যে ২৩ জন নরসিংদী সদর উপজেলার ও ৪ জন মনোহরদী উপজেলার । এদের মধ্যে করোনায় নমুনা দেয়া মাধবদী শেখেরচরের ফুলতলা এলাকার রিতা পাল শনিবার দুপুরে নিজ বাড়িতে আইসোলেশন থাকা অবস্থায় মারা যায়। পরে রোববার সকালে আনন্দী এলাকার আবদুল কাদের ও নিজ বাড়িতে আইসোলেশন থাকা অবস্থায় মারা যায়। তাদের দুজনেরই ফলাফল পজেটিভ এসেছে। তাদের মরদেহ কুইক রেসপন্স টিমের মাধ্যমে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সৎকার ও দাফন করা হয়েছে।

তিনি বলেন, বুধবার পর্যন্ত জেলার ছয়টি উপজেলা থেকে মোট ৪২২৫ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হয়েছে। এরমধ্যে ৩৫০৫ জনের রেজাল্ট পাওয়া গেছে। তাদের মধ্যে ৬৪১ জনের করোনাভাইরাস পজিটিভ এসেছে। জেলায় সংক্রমিতদের মধ্যে সদর উপজেলায় ৪৫৪ জন, রায়পুরাতে ৪১ জন, শিবপুরে ৪২ জন, বেলাবোতে ৪১ জন, পলাশে ৪৩ জন ও মনোহরদীতে ২০ জন । এদের মধ্যে সুস্থ হয়েছে ২৩৮ জন,আক্রান্ত ২৯ জন হাসপাতালে আইসোলেশনে আছেন, আর ৩৬৫ জন আইসোলেশনে আছেন বাড়িতে।

আর এখন পর্যন্ত জেলায় মারা গেছেন মোট ৯ জন। এর মধ্যে নরসিংদী সদরে ০৭ জন, পলাশে ০১ জন ও বেলাব উপজেলায় ০১ জন।

নরসিংদীর সিভিল সার্জন ডা. মো. ইব্রাহীম টিটন বলেন, বর্তমানে জেলায় আক্রান্ত ব্যক্তির সংখ্যা ব্যাপক হারে বাড়ছে। নতুন করে যারা উপসর্গ নিয়ে নমুনা দিচ্ছে তাদের রেজাল্ট না আসা পর্যন্ত বাড়িতে আইসোলেশনে থাকতে বলা হয়েছে। আর প্রতিটি উপজেলার করোনা চিকিৎসার জন্য উপজেলা ভিত্তিক ডাক্তারের নাম ও ফোন নাম্বার প্রকাশ করা হয়েছে। যাতে সহজেই সবাই চিকিৎসা পেতে পারে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads