• বৃহস্পতিবার, ৯ জুলাই ২০২০, ২৫ আষাঢ় ১৪২৭
ads
কাঠালিয়ায় আম্পানে ক্ষতিগ্রস্ত ৫ পরিবারকে বসতঘর পুনঃনির্মাণ করে দিল সেনাবাহিনী

প্রতিনিধির পাঠানো ছবি

সারা দেশ

কাঠালিয়ায় আম্পানে ক্ষতিগ্রস্ত ৫ পরিবারকে বসতঘর পুনঃনির্মাণ করে দিল সেনাবাহিনী

  • কাঠালিয়া (ঝালকাঠি) প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ০৫ জুন ২০২০

ঝালকাঠির কাঠালিয়ায় ঘূর্ণিঝড় আম্পানে ক্ষতিগ্রস্থ ৫ পরিবারকে বসতঘর পুনঃনির্মাণ করে দিয়েছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী। উপজেলার দক্ষিণ আউরা গ্রামে ঝড়ের রাতে গাছ পরে দুমরে মুচড়ে গেছে এমন ৫টি বসতঘর পুনঃনির্মাণ করে দিয়েছে সেনা সদস্যরা। শুক্রবার সকালে ক্ষতিগ্রস্ত ৫ টি পরিবারের মাঝে বসবাসের জন্য পুনঃনির্মাণ করা ঘর বুঝিয়ে দেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ৭ পদাতিক ডিভিশন শেখ হাসিনা সেনানিবাস এর ২২ ইঞ্জিনিয়ার ব্যটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল সরওয়ার ই আলম পি.এস.সি। এসময় ক্যাপ্টেন সাতিল, সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসার আযাহার আলীসহ সেনা সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

সেনাবাহিনী কর্তৃক বসতঘর পুনঃনির্মান করে দেয়ায় খুব খুশি ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলো।

উপকারভোগী মহিউদ্দিন খান (৭২) বলেন, ঝড়ের রাতে ঘরের উপর পরা গাছ সেনা সদস্যরা এসে কেটে সরিয়ে দেয় এবং আমার ভেঙে যাওয়া ঘরটি সম্পূর্ণ মেরামত করে দেয়। যা আমার পক্ষে সম্ভব ছিল না। হৃদয়দাস বলেন, সেনাবাহিনী যদি আমাদের ঘরটি তুলে না দিতো তাহলে আমাদের এখন খোলা আকাশের নিচে থাকতে হতো।

আরেক উপকারভোগী নির্মল মিস্ত্রী বলেন, ঘুর্ণিঝড়ের রাতে গাছ পরে আমার বসতঘরটি সম্পূর্ণ মাটিতে মিশে যায়, সেনাবাহিনীর সদস্যরা এসে আমার ঘরের উপর পরা বিশালাকৃতির গাছটি কেটে সরিয়ে দিয়েছে এবং আমার বসতঘরটি সম্পূর্ণ মেরামত করে দিয়েছে। যা আমার পক্ষে সম্ভব হতো না, আমার সেই সামর্থ্যও নেই।

লেফটেন্যান্ট কর্নেল সরওয়ার ই আলম পি.এস.সি বলেন, আমরা অতিদরিদ্র ৫টি পরিবারকে বসতঘর নির্মাণ করে দিয়েছি। বাংলাদেশ সেনাবাহিনী সবসময় আর্তমানবতার সেবায় সাধারণ জনগনের পাশে থাকে। সাইক্লোন আম্পান পরবর্তীতে খুবই অল্প সময়ে ঝালকাঠির কাঠালিয়া উপজেলায় ৫টি হতদরিদ্র পরিবারকে বসতঘর নির্মাণ করে দিয়েছে আমাদের সৈনিকরা।

 

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads