• বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৯ আশ্বিন ১৪২৭
ads

সারা দেশ

কক্সবাজার পৌর এলাকার রাস্তার বেহাল দশা: দ্রুত মেরামতের দাবী

  • মাহাবুবুর রহমান, কক্সবাজার
  • প্রকাশিত ০২ জুলাই ২০২০

কক্সবাজার পৌরসভার অভ্যন্তরীণ সড়কের বেহাল অবস্থা বিরাজ করছে। করোনা সংকটে রাস্তার মেরামত করতে না পারা এবং বৃষ্টির কারণে রাস্তায় বড় বড় গর্ত সৃষ্টি হয়েছে পৌর এলাকার বেশিরভাগ এলাকায়। এতে রাস্তা দিয়ে গাড়ী চলাচলতো দূরের কথা পায়ে হাটাও মুশকিল হয়ে পড়েছে এলাকাবাসীদের জন্য। এছাড়া বর্ষা মৌসুমে নালা নর্দমা পরিস্কার রাখার কথা থাকলে অনেক জায়গায় নালা নর্দমা ঠিকমত পরিস্কার হচ্ছে না বলে অভিযোগ করেন পৌরবাসী। এছাড়া পৌরসভার তত্বাবধানে বিভিন্ন এলাকায় নালা প্রসস্তের কাজ শুরু হলেও করোনা সংকটের কারণে সেই নালা কয়েক মাস থেকে মাটি কাটা অবস্থায় রাখা হয়েছে। এতে চরম দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে বলে জানান পৌরবাসী। তাই দ্রুত রাস্তা মেরামত সহ নালা কাজ শেষ করার দাবী জানান তারা।

শহরের পূর্ব টেকপাড়ার বাসিন্দা আনোয়ারুল আরিফ জানান,আমার ঘরে যাওয়ার রাস্তা টেকপাড়া বেশির ভাগ রাস্তা হাঙ্গরপাড়ার রাস্তার অবস্থা খুবই খারাপ। বর্তমানে প্রতিটি রাস্তায় বড় বড় গর্ত তৈরি হয়ে আছে। এতে রিক্সা বা অন্যকোন গাড়ীতো দূরের কথা পায়ে হাটাও মুশকিল হয়ে পড়েছে। গত কয়েক বছরে আমাদের রাস্তার কোন সংস্কার বা উন্নয়ন হয়েছে বলে আমার মনে হয় না।

আলাপকালে স্থানীয় রাখাইন বলেন,আমার বাড়ির সামনে সব সময় হাটু পানি থাকে। বৃষ্টি থাকলেও থাকে না থাকলেও থাকে। কারণ রাস্তায় যে বড় গর্ত আছে সেখানে সব সময় পানি থাকে। নোংরা পানিতে হাটতে গিয়ে পায়ে ফোঁড়া উঠছে ফলে কিছুদিন আগে স্বেচ্ছায় আরো কয়েকজন মিলে মাটির বস্তা দিয়েছি।

শহরের চাউল বাজার সড়কের মাসুদ করিম জানান, মূলত আমাদের যাতায়াত বড় বাজার হয়ে অথবা বার্মিজ স্কুলের রোড় হয়ে বাড়িতে। কিন্তু বর্তমানে যেই রাস্তা দিয়ে যাই না কেন পায়ে কাদা লাগা ছাড়া বাড়িতে পৌঁছানোর কোনো উপায় নেই। বার্মিজ স্কুল হয়ে চাউল বাজার আসার রাস্তাটি মনে হয় কোন বিশ্বযুদ্ধে ক্ষতিগ্রস্থ রাস্তা। কোন রিক্সা নিয়ে আসলে ৫০ টাকার নীচে আসতে চায় না।

এদিকে পেশকার পাড়া,পাহাড়তলী,আচিমং পেশকার পাড়া,গুদার পাড়া এলাকা বিজিবি ক্যাম্প চৌধুরী পাড়া এলাকার বেশ কয়েকজন নাগরিকের সাথে কথা বলে জানা গেছে নাগরিক দূর্ভোগের কথা। তাদের দাবী, গত পৌর নির্বাচনের পর থেকে আমরা এলাকার তেমন কোন উন্নয়ন দেখিনি। বিশেষ করে বর্তমানে ভাঙ্গা রাস্তার কারণে নাগরিক জীবন দূর্বিষহ হয়ে উঠেছে। যদিও করোনা পরিস্থিতির কারণে দেশে একটু সমস্যা চলছে তবে আমাদের দাবী নাগরিকদের দিকেও খেয়াল রাখা দরকার।

এদিকে বিকেপাল সড়ক,বাহারছড়া,ঘোনারপাড়ার বেশ কয়েকজন পৌরসভার নাগরিক বলেন, আমাদের এলাকায় নালা করার জন্য গত কয়েক মাস আগে থেকে নালার মাটি কেটে রাস্তায় গাড়ী চলাচল বন্ধ করে রেখেছে পৌরসভা। কিন্তু সেই নালা সংস্কারের কোনো নাম গন্ধ নেই। বর্তমানে করোনা সংকটের কারণে একটু সমস্যা হচ্ছে বা উন্নয়ন কাজ বন্ধ আছে হয়তো বা তবে মানুষের চরম দূর্ভোগ থেকে কিভাবে মুক্ত করা যায় সে দিকেও খেয়াল রাখা দরকার।

এ ব্যপারে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ২ জন পৌর কাউন্সিলার জানান, আমাদের অবস্থা খুবই খারাপ। না পারছি সইতে না পারছি পদত্যাগ করতে। সব কথা আপনাদের বলা যাবে না তবে এবারে নির্বাচন করে বড় ভুল করেছি বলে মনে হচ্ছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র মুজিবুর রহমান বলেন, দেশে করোনা সংকটের কারণে সব কিছুতে স্থবিরতা চলছে এটা আপনারা জানেন। আর বর্ষা মৌসুমে রাস্তার কিছুটা সমস্যা হয়। তবে খুব দ্রুত দেশের সার্বিক পরিস্থিতির উপর নির্ভর করে সব রাস্তা মেরামতের কাজ শুরু হবে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads