• শুক্রবার, ১৪ আগস্ট ২০২০, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭
ads
দুর্গাপুরে মারা যাওয়া গৃহবধূ করোনা আক্রান্ত ছিলেন

ফাইল ছবি

সারা দেশ

দুর্গাপুরে মারা যাওয়া গৃহবধূ করোনা আক্রান্ত ছিলেন

  • দুর্গাপুর (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ০৪ জুলাই ২০২০

নেত্রকোনার দুর্গাপুরে মৃত্যুর তিন দিন পর জানা গেলো রোগী করোনায় আক্রান্ত ছিলেন । গত বুধবার রাতে উপজেলার চন্ডিগড় ইউনিয়নের পাথারিয়া গ্রামে জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে মারা যান গৃহবধূ রহিমা খাতুন (৩৭) ।

পরিবার ও হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, গত রোববার করোনা উপসর্গ নিয়ে রহিমা ভর্তি হন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। তিনি দীর্ঘদিন ধরেই শ্বাসজনিত রোগে ভুগতেছিল তিনি। দুইদিন চিকিৎসার পর অবস্থার কোনো উন্নতি না হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেন । কিন্তু ময়মনসিংহ যাওয়ার আগেই নিজ বাড়িতেই মারা যান ওই গৃহবধূ ।

মৃত্যুর পর (১ জুলাই) উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসকরা তার নমুনা সংগ্রহ করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন । নমুনা পরীক্ষা শেষে শনিবার জানা যায় মৃত ওই গৃহবধূ করোনা আক্রান্ত ছিলেন । বিষয়টি নিশ্চিত করেন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিক্যাল অফিসার ডা. তানজিরুল ইসলাম রায়হান।

স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার তানজিরুন ইসলাম রায়হান জানান, রোগী ভর্তি হওয়ার পর সাধারণ রোগীর মতই তাকেও চিকিৎসাসেবা দেয়া হয়েছে । দুদিন চিকিৎসার পর রোগীর ব্রেনক্রাইটিস থাকায় উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহে যাওয়ার পরামর্শ দেই আমরা । কিন্তু তার আগেই রোগীটির মৃত্যু হলে সন্দেহবশত তার নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য প্রেরণ করা হয় । পরীক্ষার পর রোগীর করনা রিপোর্ট পজিটিভ আশায় হাসপাতালে ২৭ জন নার্স ও চারজন ডাক্তার সহ সবাই শঙ্কায় রয়েছি ।

এদিকে শনিবার নতুন করে দুর্গাপুরে আরো চারজনের করোনা শনাক্ত হয়েছে । এই নিয়ে এখন পর্যন্ত পুরো উপজেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৫২ জনে । এদের মাঝে সুস্থ হয়েছেন ২৯ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন একজন ।

নতুন আক্রান্ত ৪ জনের মাঝে দুজনই পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের কর্মকর্তা এবং বাকি দুইজন পৌরশহরের দেশওয়ালীপাড়া ও চকলেঙ্গরার বাসিন্দা ।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads