• বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৫ আশ্বিন ১৪২৭
ads
ধানের চারা রোপন করে সড়ক সংস্কারের দাবি

প্রতিনিধির পাঠানো ছবি

সারা দেশ

ধানের চারা রোপন করে সড়ক সংস্কারের দাবি

  • বাউফল প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ০৮ আগস্ট ২০২০

পটুয়াখালীর বাউফলে সড়কে ধানের চারা রোপন করে সড়ক সংস্কারের দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসী। কালাইয়া-লোহালিয়া ডিসি সড়কের কাশিপুর বাজার এলাকায় খানা-খন্দে জমা কাদা-পানিতে শুক্রবার বিকালে ধানের চারা রোপন করেন স্থানীয় কয়েকজন।

কাশিপুর বাজার এলাকার কয়েক দোকানি জানান, প্রতিদিন এই সড়ক পথে ঝুঁকি নিয়ে বাস, অটোগাড়ি, মাহিন্দ্রা, মোটরসাইকেল, ট্রলিসহ বিভিন্ন যানবাহনে বাউফল, দশমিনা ও গলাচিপা উপজেলার হাজার হাজার মানুষ জেলা শহর পটুয়াখালী যাতায়াত করেন। ঢাকা-দশমিনা, ঢাকা-গলাচিপা রুটের যাত্রিবাহি বাস সার্বিসও এই সড়ক পথ অতিক্রম করে। কিন্তু খানা-খন্দের কারণে এই সড়কে প্রতিনিয়ত ঘটছে ছোট-বড় দুর্ঘটনা। সড়কের দশমিনা এলাকার প্রায় ৩০ কিলোমিটারসহ বাবুর হাট, ভিডিসি, নগরের হাট, ভাঙ্গা ব্রিজ, হোলাবুনিয়া, আশুরির হাট, সিদ্দিকের হাট, মিল ঘর, হাতেম মৃধার বাজার ও কাশিপুর বাজার অংশে ব্যাপক খানা-খন্দ তৈরী হয়েছে। কার্পেটিং উঠে সৃষ্টি হয়েছে বড় বড় গর্তের। বর্ষায় এসব গর্তে জমে থাকে পানি। চালকের সুবিদার্থে খানা-খন্দ নির্ধারণে অনেক স্থানে লাঠির মাথায় বেঁধে রাখা হয়েছে লাল কাপড়। সড়কের ভিডিসি থেকে ভাংগা ব্রিজ পর্যন্ত সংস্কার কাজ শুরু হলেও চলছে তা কচ্ছপ গতিতে। দীর্ঘদিন পর্যন্ত এই বেহাল অবস্থার পরিত্রাণ পেতে স্থানীয়রা সড়কের ওই ভাঙ্গা অংশে কাদা-পানিতে ধানের চারা রোপন করে কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ ও সংস্কারের দাবি জানায়।

কাশিপুর ও আশুরীর হাট বাজারের দুই দোকানি সুলতান খা এবং আলমগীর হোসেন অভিন্ন বলেন, ‘গাড়ী আটকে যাচ্ছে সড়কে। ২৫-৩০ জন মিলে রশি দিয়ে আটকে যাওয়া গাড়ি টেনে তুলতে হয় প্রায়ই। সড়কের কাদাপানি ঢুকে যাচ্ছে দোকানে।’

এ ব্যাপারে উপজেলা প্রকৌশলী সুলতান আহম্মেদ বলেন, ‘সড়কটির কিছু অংশে কার্পেটিং চলছে। কিছু অংশ দ্রুত সংস্কারে দেয়া আছে।’

পটুয়াখালী জেলা নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুস ছত্তার সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমি নতুন যোগদান করেছি। সকল গুরুত্বপূর্ণ সড়ক সিগগির টেন্ডার আহবান করা হবে।’

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads