• রবিবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২ আশ্বিন ১৪২৭
ads
স্বামী হত্যার বিচার চাইতে গিয়ে কাঁদলেন তিনি

প্রতিনিধির পাঠানো ছবি

সারা দেশ

স্বামী হত্যার বিচার চাইতে গিয়ে কাঁদলেন তিনি

  • কুমিল্লা প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ১০ আগস্ট ২০২০

স্বামী হত্যার বিচার চাইতে গিয়ে কাঁদলেন নিহত আক্তার হোসেনের স্ত্রী রেখা বেগম। এ সময় হত্যা মামলায় অভিযুক্ত প্রধান আসামি আলমগীর হোসেনের কাউন্সিলর পদ স্থগিত রাখার দাবি জানান আক্তার হোসেনের স্বজনরা। সোমবার কুমিল্লা নগরীর চাঙ্গিনী এলাকায় আয়োজিত সাংবাদিক সম্মেলনে এ দাবি জানান তারা।

এ সময় নিহত আক্তার হোসেনের স্ত্রী রেখা বেগম বলেন, কাউন্সিলরের লোকজন আমাদেরকে প্রতিনিয়ত হুমকি দেয়। তারা আমাদের হত্যার ভয় দেখায়। আমরা পুরো পরিবারের নিরাপত্তার দাবি জানাচ্ছি। ১০জন আসামির মধ্যে তিনজন গ্রেপ্তার হয়েছে। এ মামলার প্রধান আসামি কাউন্সিলর আলমগীর এখনও গ্রেপ্তার হয়নি। আমার স্বামী হত্যার বিচার চাই, হত্যাকারীদের ফাঁসি চাই।

নিহত আক্তার হোসেনের ছোট ভাই যুবলীগ নেতা মো. শাহজালাল আলাল  লিখিত বক্তব্যে বলেন, যদি প্রধান আসামিকে কাউন্সিলর পদ থেকে অপসারণ না করা হয়, তাহলে সঠিক বিচারে বাধা হতে পারে। তাকে যুবলীগ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে, ঠিক তেমনি কাউন্সিলর পদ থেকে বহিষ্কার করে বিচারের আওতায় নেওয়া হোক।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, নিহত আক্তার হোসেনের বড় ভাই  হাফেজ মো. মনির হোসেন, স্থানীয় মসজিদের ইমাম মাওলানা মো. শহিদুল ইসলাম, স্থানীয় বাসিন্দা আতিকুল ইসলাম মাসুদ প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, পারিবারিক বিরোধের জেরে গত ১০ জুলাই জুমার নামাজের পর কুমিল্লা নগরীর চাঙ্গিনী মসজিদ থেকে টেনে বের করে শতশত মানুষের সামনে পিটিয়ে আক্তার হোসেনকে হত্যার অভিযোগ করেছে তার পরিবার। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী সদর দক্ষিণ থানায় কাউন্সিলর আলমগীরকে প্রধান আসামি করে ১০ জনের নামে মামলা করেন।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads