• রবিবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২ আশ্বিন ১৪২৭
ads
ফিজিওথেরাপী সেন্টারের নামে অসামাজিক কর্মকাণ্ড, দুই নারীসহ আটক ৩

প্রতিনিধির পাঠানো ছবি

সারা দেশ

ফিজিওথেরাপী সেন্টারের নামে অসামাজিক কর্মকাণ্ড, দুই নারীসহ আটক ৩

  • প্রকাশিত ১৩ আগস্ট ২০২০

শৈলকুপা(ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি:

ঝিনাইদহের শৈলকুপায় অসামাজিক কর্মকাণ্ডের দায়ে ২ নারী ও এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার তমালতলা পুলিশ ক্যাম্পের আইসি এসআই উত্তম কুমার তাদের আটক করে থানায় সোপর্দ করে।

জানা যায়, উপজেলার ত্রিবেনী ইউনিয়নের বসন্তপুর গ্রামে ৩ তলা একটি বাড়ীর নিচতলায় দীর্ঘদিন ধরে ফিজিওথেরাপী সেন্টারের নাম করে অসামাজিক কার্যকলাপ চলছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সেখানে অভিযান চালায় পুলিশ।

এসময় অসামাজিক কার্যকলাপের আলামত ও দুই নারীসহ প্রতিষ্ঠানের মালিককে আটক করা হয়। আটককৃতরা হলো- কথিত ফিজিওথেরাপী মালিক কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার মিরপুর গ্রামের হাসমত আলী শেখের ছেলে খায়রুল ইসলাম (৩৮), একই জেলার ইবি থানা এলাকার ঝাউদিয়া গ্রামের আমিরুল ইসলামের স্ত্রী নুরুন্নাহার (২৬) ও হরিনারায়পুর গ্রামের মৃত আব্দুল কাদেরের স্ত্রী শেফালী বেগম (৫২)।

তমালতলা ক্যাম্প আইসি এসআই উত্তম কুমার জানান, বসন্তপুর গ্রামের তিনতলা ঐ বাড়ী ফিজিওথেরাপী সেন্টারের নাম করে ভাড়া নিয়ে খায়রুল ইসলাম দীর্ঘদিন ধরে বাইরে থেকে মহিলা এনে অসামাজিক কার্যকলাপ চালায় বলে অভিযোগ পেয়ে তারা এ অভিযান পরিচালনা করেন। এসময় অসামাজিক কার্যকলাপের আলামতসহ ৩ জনকে আটক করেন। আটককৃতদেরকে প্রসিকিউশন দিয়ে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি এই বাড়ীর নিচ তলায় কথিত ফিজিওথেরাপী সেন্টারে অভিযান চালিয়ে র‌্যাব-৬ বিপুল পরিমাণ ইয়াবা ট্যাবলেটসহ একজনকে আটক করে। সেসময় প্রতিষ্ঠানের মালিক খায়রুল ইসলাম পলাতক ছিলো।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads