• বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ১৪ কার্তিক ১৪২৭
দূর্গাপূজায় ৩ দিনের সরকারি ছুটির দাবিতে ঈশ্বরদীতে হিন্দু মহাজোটের মানববন্ধন ও পথসভা

প্রতিনিধির পাঠানো ছবি

সারা দেশ

দূর্গাপূজায় ৩ দিনের সরকারি ছুটির দাবিতে ঈশ্বরদীতে হিন্দু মহাজোটের মানববন্ধন ও পথসভা

  • ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০

শারদীয় দূর্গোৎসবে তিন দিন সরকারী ছুটির দাবিতে শুক্রবার ঈশ্বরদীতে মানববন্ধন ও পথসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। জাতীয় হিন্দু মহাজোট ঈশ^রদী উপজেলা কমিটির আয়োজনে ঈশ্বরদীতে প্রেসক্লাবের সামনের সড়কে এই মানববন্ধন ও পথসভা অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, ষষ্ঠি থেকে দশমী পর্যন্ত ৫ দিন দূর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হয়। অথচ সরকারি ছুটি দশমিতে মাত্র একদিন। দশমিতে পূজা সমাপন হয়ে প্রতিমা বিসর্জন হয়। দশমিতে ছুটি থাকায় পূজা চলাকালীন সময়ে পুষ্পাঞ্জলি ও প্রার্থনার সুযোগ নেই। সুযোগ হয় না পরিবার-পরিজন নিয়ে প্রতিমা দর্শনে বের হবার। স্বাধীনতা উত্তর ও পরবর্তী সময়েও এই দেশে দূর্গাপূজায় একাধিক দিন ছুটির ব্যবস্থা ছিল। জাতীয় সংসদে বিল আকারে উপস্থাপনের মাধ্যমে দূর্গাপূজায় তিন দিন ছুটির ব্যবস্থা প্রবর্তনের জন্য সভায় দাবী জানানো হয়েছে।

মহাজোটের উপজেলা সভাপতি আশুতোষ পাল’র সভাপতিত্বে পথসভায় বক্তব্য রাখেন প্রেসক্লাবের সভাপতি স্বপন কুমার কুন্ডু, প্জূা উদ্যাপন পরিষদের সভাপতি সুনিল চক্রবর্তি, সাধারণ সম্পাদক গনেশ সরকার, মহাজোট পৌরশাখার সভাপতি উত্তম সাহা, হিন্দু বৌদ্ধ খৃষ্টান ঐক্য পরিষদের উপজেলা সহ-সভাপতি উমা শংকর বাবু পান্ডে, পৌর সভাপতি  পার্থপ্রতীম দাস,  পৌর শ্মশানের দিপু রায়। এসময় মহাজোটের মাধব কুন্ডু, সুমন সাহা, সাড়া ইউনিয়ন কমিটির সভাপতি মিতুল শীল, সম্পাদক সুমন কুন্ডু, সুবাস সরকার, পাকশী ইউনিয়ন কমিটির সম্পাদক দিপঙ্কর শীল, দিপক পাল, সন্তোষ দাস, পূজা উদযাপন পরিষদ, মন্দির পরিচালনা কমিটির নেতৃবৃন্দসহ মহাজোটের বিভিন্ন ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড কমিটির নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। পরে সভায় সমাপনি বক্তব্য রাখেন উপজেলা মহাজোটের সাধারণ সম্পাদক দেব দুলাল রায় ।

ৱসভা সঞ্চালনা করেন মহাজোটের উপজেলা সমন্বয়কারী গোপাল অধিকারী।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads