• শনিবার, ৩১ অক্টোবর ২০২০, ১৬ কার্তিক ১৪২৭
ফুলপুরে ব্রিজের গোঁড়ায় গর্ত, ভোগান্তিতে ১০ গ্রামের মানুষ

প্রতিনিধির পাঠানো ছবি

সারা দেশ

ফুলপুরে ব্রিজের গোঁড়ায় গর্ত, ভোগান্তিতে ১০ গ্রামের মানুষ

  • ফুলপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০

ময়মনসিংহের ফুলপুর উপজেলার ভাইটকান্দি ইউনিয়নে খড়িয়া নদীতে ঘাটপাড় ব্রিজের গোঁড়া থেকে এ্যাপ্রোচ ধসে মাটি সরে বড় গর্ত হওয়ায় ভোগান্তিতে পড়েছেন প্রায় ১০ গ্রামের মানুষ। ভাইটকান্দি বাজার থেকে দারাকপুর সড়ক দিয়ে ভাইটকান্দি দক্ষিণপাড়া, খড়িয়াঘাটপাড়, দারাকপুর উত্তরপাড়া, বাঘার মোড়, রামনাথপুর, চরবাহাদুরপুর, রামভদ্রপুর, বাহাদুরপুর ও নীলগঞ্জসহ প্রায় ১০ গ্রামের মানুষ চলাচল করে থাকেন। তাদের নিত্যদিনের বাজার ও কৃষি পণ্য বহনের এটাই একমাত্র সড়ক। এখানে ব্রিজের গোঁড়ায় বড় গর্ত হওয়ায় বড় গাড়ি চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, রাস্তার অবস্থা খুবই খারাপ। রাস্তার এক পাশ দিয়ে ঠেলাগাড়ি, ভ্যান গাড়ি ও রিকশা জাতীয় ছোট যানবাহনগুলো চলাচল করছে। রাস্তাটি যেভাবে দ্রুত ভেঙে যাচ্ছে তাতে অনুমান হচ্ছে, জরুরিভিত্তিতে সংস্কার না করা হলে শুক্র-শনিবারের মধ্যে ওখান দিয়ে আর কোন ছোট গাড়িও চলাচল করতে পারবে না।

দারাকপুর গ্রামের ভ্যান চালক সাখাওয়াত হোসেন বলেন, এইটুকু জায়গা পার হতে আত্মাটা বের হয়ে যায়। যেইন্দা কুত্তা আনিগুনি করে না হেইন্দা রাস্তা পাক্কা কইরা থইছে। আর এইন্দা ভাংতিডা মেরামত না করার কারণে আমরা চলাচলই করতারি না। একই গ্রামের হানিফ উদ্দিন বলেন, আমরা মাথাত কইরা ধান বন বাজারে নেই আর উজ্জ্বল বলেন, গত ৪/৫ মাস আগে ভ্যান চালক বুইদ্দা যাত্রী নিয়ে দারাকপুর থেকে ভাইটকান্দি মোড়ে যাওয়ার সময় এই জায়গায় ভ্যান উল্টে সবাই ব্রিজের নিচে গর্তে পড়ে যায়। এতে ছোট এক বাচ্চার পা ভেঙে যায় ও কান ফেটে যায়। পরে তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দীর্ঘ দিন রেখে চিকিৎসা করাতে হয় এবং এর খরচ ভ্যানওয়ালাকে বহন করতে হয়।

ভাইটকান্দি দক্ষিণপাড়া গ্রামের রহিম উদ্দিন বলেন, ৪/৫ দিন আগে আমরা চেয়ারম্যানের কাছে গেছিলাম। চেয়ারম্যান কইছে, আন্না। আর পারতাম না। মেলা করছি। একই গ্রামের তফাজ্জল বলেন, চেয়ারম্যানরে আমিও কইছিলাম। পরে চেয়ারম্যান কইলো, এইডা তো আমার কাজ না। এইডা ইউএনও সাইবের কাজ।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শীতেষ চন্দ্র সরকারের নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি এখনই উপজেলা ইঞ্জিনিয়ারকে জায়গাটা ভিজিট করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্যে বলে দিচ্ছি।

 

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads