• সোমবার, ১ মার্চ ২০২১, ১৬ ফাল্গুন ১৪২৭

সারা দেশ

সেবার মানে বিভাগ সেরা আত্রাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স

  • আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ১৭ জানুয়ারি ২০২১

জাতি যখন মুজিববর্ষ পালনের উল্লাসে উল্লোসিত ঠিক সে সময় উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার ডা.রোকসানা হ্যাপির তত্ত্বাবধানে আরেক বিজয় এনে দিলেন নওগাঁর আত্রাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স। ডিসেম্বর মাসের ম্যানেজমেন্ট ও সেবাদান কার্যক্রমের রিপোর্টে এ হাসপাতাল বিভাগে ১ম স্থান অর্জন করেছেন যা হাসপাতাল প্রতিষ্ঠা লগ্নে প্রথম বলে রোববার সকালে জানান ডা. রোকসানা হ্যাপি। এদিকে প্রয়োজনের তুলনায় জনবল কম নিয়ে বৈশিক করোনা পরিস্থিতির মাঝেও আন্তরিকতার সাথে স্বাস্থ্য সেবা ও পরামর্শ কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়ায় এলাকাবাসী সন্তোষ্টি প্রকাশ করেছেন।

জানা যায়, ৫০ শয্যা বিশিষ্ট এ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ১৫ জন ডাক্তার অনুমোদন থাকলেও কর্মরত রয়েছেন মাত্র ৭ জন। যে কারনে উপজেলার বিপুল সংখ্যক জনগোষ্ঠির চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করতে হিমসিম খেতে হচ্ছে এ অল্প সংখ্যক চিকিৎসককে। করোনা সংকটের প্রথমে কিছুটা রোগী কম হলেও গত ৫-৬ মাস থেকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আউটডোরে প্রতিদিন আড়াই/তিন শতাধিক রোগী চিকিৎসা গ্রহন করছেন। এ ছাড়াও ইনডোরে চিকিৎসারত থাকছে অনেক রোগী। বর্তমানে এ সংখ্যা কয়েকগুন বৃদ্ধি পেয়েছে। ইনডোরেও দেখা গেছে রোগীর সংখ্যা খুবই বেশি। অধিকাংশ বেড রোগীতে পূর্ণ হয়ে রয়েছে। সাম্প্রতিক সময়ে করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেয়ের মাঝেও চিকিৎসকদের আচরণের কারনে রোগীরা এখানে আসতে আগ্রহ প্রকাশ করছেন বলে জানা গেছে।

উপজেলার হাটকালুপাড়া গ্রামের গর্ভবতী মরিওম বেগম বলেন, আত্রাই হাসপাতাল পরিস্কার ও পরিচ্ছন্ন। লোকবল কম তারপরও তারা আন্তরিকতার সাথে সাধ্যমত হাসিমুখে সব সেবা দেন। আমরা তাদের সেবায় সন্তুষ্টু। এখানে সিজারিয়ান অপারেশনের ব্যবস্থা নেই। কিন্তু স্বাভাবিক ডেলিভারির ব্যবস্থা বেশ ভাল।

উপজেলার নৈদীঘি গ্রামের বেলায়েত বলেন, এখানে জনবল সংকটের মধ্যেও সব সেবার মান খুবই ভালো।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার রোকসানা হ্যাপি বলেন, এ বিজয় আত্রাই বাসীর। এর ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে সবার সহযোগিতা প্রয়োজন। এছাড়া অল্প সময়ের মধ্যে ভায়া টেষ্টের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। এতে করে বিনামূল্যে মা-বোনেরা তাদের জরায়ু ক্যান্সারের পরীক্ষা সহজেই করতে পারবে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads