• বৃহস্পতিবার, ১৫ এপ্রিল ২০২১, ২ বৈশাখ ১৪২৭
ময়মনসিংহে মাদরাসা ছাত্রীকে গণধর্ষণের অভিযোগ, গ্রেপ্তার ৫

প্রতিনিধির পাঠানো ছবি

সারা দেশ

ময়মনসিংহে মাদরাসা ছাত্রীকে গণধর্ষণের অভিযোগ, গ্রেপ্তার ৫

  • ময়মনসিংহ ব্যুরো
  • প্রকাশিত ০৩ মার্চ ২০২১

ময়মনসিংহে মাদরাসা ছাত্রীকে গণধর্ষণ করে ভিডিও ধারণের অভিযোগে পাঁচ যুবককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আজ বুধবার দুপুরে সদর উপজেলার রুপাখালী এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তারের কথা জানিয়েছেন র‌্যাব-১৪ এর কোম্পানি কমান্ডার মেজর মো. ফজলে রাব্বি।

গ্রেপ্তারব হলেন সিরাজুল ইসলামের ছেলে নাছিম আহম্মেদ রিপন (২২), আইয়ুব আকন্দের ছেলে আশিক আকন্দ (১৯), হানিফ আকন্দের ছেলে লিওন আকন্দ (২০), ফজলূল হকের ছেলে মো. খোকন (২৭), তারা সবাই সদর উপজেলার রূপাখালী পূর্বপাড়া গ্রামের বাসিন্দা। গ্রেপ্তারকৃত অপর আরেক জন মুক্তাগাছা উপজেলার সোহরাব উদ্দিনের ছেলে মো. ছমিন (১৭)।

অভিযোগের বরাত দিয়ে ময়মনসিংহ র‌্যাব-১৪ এর কোম্পানী কমান্ডার মেজর মো. ফজলে রাব্বি বলেন, গত ২৬ জানুয়ারী রাতে পূর্বপরিচিত মো. আশিকের মোবাইল ফোনে কল দিয়ে কথা আছে বলে মাদরাসা ছাত্রীকে ঘর থেকে বের হতে বলে। পরে পূর্বপরিকল্পিতভাবে বাড়ির আঙ্গিনার পাশে ওৎপেতে থাকা আশিক ও তার সহযোগীরা গামছা দিয়ে মুখ ও হাত, পা বেঁধে কাঁধে করে বাড়ীর পশ্চিম পার্শ্বে মাছের ফিসারির পূর্ব পাশে খালী জায়গায় নিয়ে যায়। সেখানে তারা রাতভর ধর্ষণ করে এবং ফোন দিয়ে ভিডিও চিত্র ধারন করে অজ্ঞান অবস্থায় ফেলে রেখে যায়। ঘটনাটি কাউকে জানালে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভিডিও ছেড়ে দেয়ার হুমকি দেয়া হয়।

২৭ ফেব্রুয়ারী মো.খোকন মোবাইলে ধারণকৃত ধর্ষণের ভিডিও বিভিন্ন লোকজনকে দিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল করে। গতকাল মঙ্গলবার নির্যাতনের শিকার ওই মাদ্রাসা ছাত্রীর বাবা একটি লিখিত অভিযোগ দিলে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে আইনী প্রক্রিয়া চলছে বলেও জানিয়েছেন মেজর মো. ফজলে রাব্বি।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads