• সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৪
ads

ক্রিকেট

টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রস্তাব 

  • স্পোর্টস রিপোর্টার
  • প্রকাশিত ১১ মে ২০১৮

লাভজনক নয় অজুহাত দেখিয়ে গত বুধবার বাংলাদেশের বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট এবং ওয়ানডে সিরিজ বাতিলের ঘোষণা দেয় ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ)। চলতি বছরের আগস্ট-সেপ্টেম্বরে অস্ট্রেলিয়ায় গিয়ে দুই ম্যাচের টেস্ট এবং তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলার কথা ছিল টাইগারদের। তবে টিভি স্বত্ব বিক্রি হবে না বলে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সঙ্গে আলোচনা করেই সিরিজটি বাতিল করা হয়েছে বলে জানায় অজি ক্রিকেট বোর্ড। এর পরিবর্তে ২০১৯ সালে অস্ট্রেলিয়াতে টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে বাংলাদেশকে প্রস্তাব দিয়েছে দেশটির ক্রিকেট বোর্ড। বিষয়টি নিয়ে এখনো আলোচনা চলছে।

২০০৩ সালে প্রথম অস্ট্রেলিয়ায় টেস্ট সফরে গিয়েছিল বাংলাদেশ। আর এখন পর্যন্ত সেটাই শেষবার। অনেক কাঠখড় পুড়িয়ে গত বছর বাংলাদেশ সফরে এসে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলে অজিরা। ১-১ ব্যবধানে ড্র হয়েছিল সেই সিরিজ। এ বছর সফরে গেলে উত্তর অস্ট্রেলিয়ায় ম্যাচ খেলতে হবে বাংলাদেশকে। ঐতিহাসিকভাবেই আগস্ট-সেপ্টেম্বরে ওই অঞ্চলে টেস্টের দর্শক পাওয়া যায় না। তা ছাড়া টিভি সম্প্রচারকারকরাও ফুটবল মৌসুমের মধ্যে এই সিরিজটি প্রচার করতে আগ্রহী নয়। তাই দুই বোর্ডের সমঝোতাতেই সফরটি বাতিল হয়েছে বলে জানিয়েছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া।

তবে বাংলাদেশকে একেবারে বঞ্চিত করতে চান না অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট কর্মকর্তারা। তাদের মাটিতে ২০২০ সালে আয়োজিত হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ক্রিকেট। এর প্রস্তুতির জন্য এবং টাইগারদের অস্ট্রেলিয়া কন্ডিশনে খাপ খাওয়াতে সাহায্য করার লক্ষ্যে ২০১৯ সালে টি-টোয়েন্টি সিরিজ আয়োজন করতে চায় দেশটির ক্রিকেট বোর্ড। এটি হতে পারে ত্রিদেশীয় টুর্নামেন্টও।

এদিকে ২০১৯ সালে ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত হবে আইসিসি ওয়ানডে বিশ্বকাপ। বাতিল হওয়া সিরিজটির বিকল্প হিসেবে ওয়ানডে বিশ্বকাপের পর বাংলাদেশ সফরে আসতে চায় অস্ট্রেলিয়া। এ ব্যাপার নিয়ে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

অনেকেই ধারণা করছে, অস্ট্রেলিয়ার বর্তমান ন্যক্কারজনক ক্রিকেট অবস্থার কারণেই তারা হঠাৎ করে বাংলাদেশের মুখোমুখি হতে চাচ্ছে না। বাংলাদেশ হয়তো টেস্ট ক্রিকেটে অস্ট্রেলিয়ার তুলনায় অনেক পিছিয়ে আছে, কিন্তু ইদানীং টাইগারদের সমীহ করছে সব দেশই। অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ, সহ-অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নারসহ তিন গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেটার বল টেম্পারিং ঘটনায় বহিষ্কৃত হয়েছেন। এ ঘটনায় অজিদের শক্তি যে অনেকাংশে কমে গেছে তার প্রমাণ দক্ষিণ আফ্রিকার সঙ্গে সিরিজের শেষের ম্যাচগুলোতে টানা হার। বাংলাদেশ যদি অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে ভালো কোনো ফল করে ফেলে, তাহলে ইজ্জত আরো কমে যাবে তাদের। নাও হতে পারে এই কারণ। আবার হতেও তো পারে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads