• বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১ কার্তিক ১৪২৪
ads
ফিরলেন ওয়ালশ

মাশরাফির বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালশ

সংগৃহতি ছবি

ক্রিকেট

ফিরলেন ওয়ালশ

  • স্পোর্টস ডেস্ক
  • প্রকাশিত ০৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮

আসন্ন এশিয়া কাপ ক্রিকেট আসরকে সামনে রেখে গত সোমবার থেকে দ্বিতীয় ধাপের অনুশীলন শুরু করেছে বাংলাদেশ দল। প্রথম ধাপে ফিটনেস ট্রেনিংয়ের পর এখন দ্বিতীয় ধাপে ক্রিকেটারদের বোলিং ও ব্যাটিং টেকনিক নিয়ে কাজ করছেন ম্যাকেঞ্জিরা। তবে এশিয়া কাপকে সামনে রেখে গতকাল মঙ্গলবারই প্রথমবারের মতো ক্রিকেটারদের বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালশ দলের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন।

ক্যারিবিয়ান সফর শেষ করে ৯ আগস্ট দেশে ফেরে লাল-সবুজের দল। কিন্তু সেই সময় ওয়েস্ট ইন্ডিজেই থেকে যান মাশরাফিদের বোলিং গুরু ওয়ালশ। পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাতে এতদিন ছুটিতে ছিলেন তিনি। তবে ছুটি কাটিয়ে বাংলাদেশে ফিরেছেন তিনি। এশিয়া কাপকে সামনে রেখে গতকাল থেকে মিরপুরে রুবেল, আবু হায়দার রনি, মোস্তাফিজদের বোলিং নিয়ে কাজ করা শুরু করেছেন।

এদিকে মাশরাফিদের প্রধান কোচ স্টিভ রোডস ছাড়া ব্যাটিং কোচ নিল ম্যাকেঞ্জি ও স্পিন কোচ সুনীল যোশী সোমবার থেকে অনুশীলন ক্যাম্পে যোগ দিয়েছেন। ইংলিশ ফিল্ডিং কোচ রায়ান কুক আজ বুধবার দলের সঙ্গে যোগ দেবেন। ফিল্ডিং কোচ এখনো না এলেও বলা যায় গতকাল থেকে পুরো কোচিং স্টাফকে নিয়ে এশিয়া কাপের প্রস্তুতি শুরু হয়েছে। অনুশীলন ক্যাম্প চলবে কাল বৃহস্পতিবার পর্যন্ত।

ক্যারিবিয়ান লিগ শেষ করে ৭ সেপ্টেম্বর দেশে ফেরার কথা রয়েছে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের। দেশে ফিরে তিনি ৯ সেপ্টেম্বর দলের সঙ্গে আরব আমিরাতের বিমান ধরবেন। সাকিব আল হাসানের অনুশীলন ক্যাম্পে যোগ না দিয়ে সরাসরি আরব আমিরাতে দলের সঙ্গে যোগ দেওয়ার কথা রয়েছে।

আগামী ১৫ থেকে ২৮ সেপ্টেম্বর সংযুক্ত আরব আমিরাতে অনুষ্ঠেয় ৬ জাতির এশিয়া কাপ ক্রিকেট‌কে সামনে রেখে গত ২৭ আগস্ট শুরু হয়েছিল বাংলাদেশ দলের অনুশীলন ক্যাম্প। টুর্নামেন্টে অংশ নিতে ৯ সেপ্টেম্বর আরব আমিরাতের উদ্দেশে দেশ ছাড়বে মাশরাফি বাহিনী। ১৫ সেপ্টেম্বর এশিয়া কাপের ‘বি’ গ্রুপে উদ্বোধনী ম্যাচেই বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ সাবেক বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কা। ছয় দলের আসরে গ্রুপের অন্য দলটি হলো আফগানিস্তান। আর ‘এ’ গ্রুপে রয়েছে অপর দুই সাবেক বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন পাকিস্তান ও ভারত এবং বাছাই পর্ব থেকে উঠে আসা একটি দল।

এশিয়া কাপের মোট ১৩ আসরের মধ্যে ভারত ৬ সর্বোচ্চ বার, শ্রীলঙ্কা ৫ বার এবং পাকিস্তান ২ বার শিরোপা জিতেছে। ভারত ৩ বার, শ্রীলঙ্কা ৬ বার এবং পাকিস্তান ও বাংলাদেশ ২ বার করে রানার্স আপ হয়েছে। ২০১২ ও ২০১৬ সালের আসরে রানার্স আপ হয়েছে বাংলাদেশ দল।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads