• শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০১৯, ৪ শ্রাবণ ১৪২৫
ads
জোড়া সেঞ্চুরিতে দুরন্ত ভারত

ছবি : সংগৃহীত

ক্রিকেট

জোড়া সেঞ্চুরিতে দুরন্ত ভারত

  • ক্রীড়া প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ০৭ জুলাই ২০১৯

বিশ্বকাপের রাউন্ড রবিন লিগের শেষ ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে দুরন্ত জয় পেয়েছে ফেভারিট ভারত। গতকাল রোহিত শর্মা ও লোকেশ রাহুলের সেঞ্চুরিতে লঙ্কানদের ৭ উইকেটে হারিয়েছে কোহলি ব্রিগেড। নয় ম্যাচে ১৫ পয়েন্ট নিয়ে তালিকায় শীর্ষে উঠে এসেছে ভারত। তবে ম্যানচেস্টারে দিনের অন্য ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারাতে পারলে শীর্ষস্থান আবার দখল করবে অস্ট্রেলিয়া। কিন্তু অস্ট্রেলিয়া হেরে গেলে শীর্ষস্থান ভারতেরই থাকবে। সে ক্ষেত্রে নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে সেমিতে খেলবে ভারত। অন্য সেমিতে মুখোমুখি হবে অস্ট্রেলিয়া-ইংল্যান্ড। আগে ব্যাট করতে নেমে ডু প্লেসিসের সেঞ্চুরিতে দক্ষিণ আফ্রিকা করে ৬ উইকেটে ৩২৫ রান। জবাবে এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়ার সংগ্রহ ১৫ ওভারে ২ উইকেটে ৭২ রান। 

লিডসে অ্যাঞ্জোলো ম্যাথুসের সেঞ্চুরিতে সাত উইকেটে ২৬৪ রান করে শ্রীলঙ্কা। জবাবে ভারত জয়ের বন্দরে পৌঁছায় ৩৯ বল হাতে রেখে, উইকেট খোয়াতে হয় মাত্র তিনটি। ভারতের হয়ে সেঞ্চুরির দেখা পান দুই ওপেনার রোহিত ও রাহুল। সেঞ্চুরিতে নতুন রেকর্ড গড়েছেন রোহিত শর্মা। চলতি বিশ্বকাপে রোহিতের এটি পঞ্চম সেঞ্চুরি, যা যেকোনো বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ সেঞ্চুরির ঘটনা। আগের রেকর্ড ছিল শ্রীলঙ্কার কুমার সাঙ্গাকারার। ২০১৫ বিশ্বকাপে তিনি হাঁকিয়েছিলেন সর্বোচ্চ চারটি সেঞ্চুরি। ম্যাচসেরার পুরস্কার জেতেন অনুমিতভাবে রেকর্ড গড়া রোহিত শর্মা।

ভারতের ব্যাটিং লাইনআপে ন্যূনতম চিড় ধরাতে পারেননি লঙ্কান বোলাররা। ওপেনিং জুটিতে আসে ১৮৯ রান। ১০৩ রান করে সাজঘরে ফেরেন রোহিত শর্মা। ৯৪ বলের ইনিংসে রোহিত হাঁকিয়েছেন ১৪টি চার ও দুটি ছক্কা। কোহলির সঙ্গে শক্ত জুটি হয় রাহুলের। বিশ্বকাপে নিজের প্রথম সেঞ্চুরি করে ফেরেন রাহুল। ১১৮ বলে ১১১ রান করে তিনি মালিঙ্গার শিকার। রিশব পন্থ দ্রুত ফিরলেও কোহলি (৩৪) ও পান্ডিয়ার (৭) অবিচ্ছিন্ন জুটি ভারতকে পাইয়ে দেয় সহজ জয়। লঙ্কানদের হয়ে একটি করে উইকেট পান রাজিথা, উদানা ও মালিঙ্গা। বিশ্বকাপে নিজের শেষ ম্যাচটি খেলে ফেলেন মালিঙ্গা। বাহারি চুলের স্টাইল আর দুর্দান্ত ইয়র্কার আর দেখা যাবে না কোনো বিশ্বকাপে।

এর আগে টস জিতে আগে ব্যাট করতে নেমে ৫৫ রানের মধ্যে টপ অর্ডারের চার ব্যাটসম্যানকে হারিয়ে বিপদে পড়ে শ্রীলঙ্কা। তবে সেখান থেকে দলকে টেনে তুলেন ম্যাথুস ও থিরিমান্নে। দুজনে যোগ করেন ১২৪ রান। তাতেই সম্মানজনক স্কোরে পৌঁছায় লঙ্কানরা। থিরিমান্নে (৫৩) ফিফটি করে বিদায় নিলেও ম্যাথুস ছিলেন মারমুখী। ডি সিলভাকে সঙ্গে করে যোগ করেন আরো ৭৪ রান।

দুটি ‘ডাক’ দিয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করা ম্যাথুস টুর্নামেন্ট শেষ করেন বিশ্বকাপে প্রথম সেঞ্চুরি দিয়ে। ওয়ানডেতে ম্যাথুসের তিন সেঞ্চুরির তিনটিই ভারতের বিপক্ষে। বুমরাহর বলে রোহিত শর্মাকে ক্যাচ দিয়ে শেষ হয় ১০ চার ও ২ ছক্কায় গড়া তার ১১৩ রানের লড়াকু ইনিংস। ২৯ রানে অপরাজিত থাকেন ডি সিলভা। ৩৭ রানে ৩ উইকেট নিয়ে ভারতের সেরা বোলার বুমরাহ।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads