• শুক্রবার, ২২ জানুয়ারি ২০২১, ৮ মাঘ ১৪২৭
জিম্বাবুয়েকে হারিয়ে ফাইনালে বাংলাদেশ

ত্রিদেশীয় সিরিজের নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে জিম্বাবুয়েকে ৩৯ রানে হারিয়েছে বাংলাদেশ। এ জয়ের ফলে প্রথম দল হিসেবে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে উঠলো স্বাগতিকরা।

ছবি : সংগৃহীত

ক্রিকেট

ত্রিদেশীয় সিরিজ

জিম্বাবুয়েকে হারিয়ে ফাইনালে বাংলাদেশ

  • স্পোর্টস ডেস্ক
  • প্রকাশিত ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯

বাংলাদেশের দেওয়া ১৭৬ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ১৩৬ রানে সবকটি উইকেট হারিয়ে ফেলেছে জিম্বাবুয়ে। এর ফলে ৩৯ রানের জয় পায় বাংলাদেশ। এর আগে জিতার লক্ষ্য নিয়ে খেলতে নেমে শুরুটা ভালো করতে পারেনি মাসাকাদজার দল। আট রানের মাথায় তিন উইকেট হারিয়ে বসে দলটি। খেলতে নেমে ইনিংসের প্রথম ওভারের পঞ্চম বলেই সাজঘরে ফেরেন ব্রেন্ডন টেইলর। সাইফউদ্দিনের বলে সাকিবের হাতে ক্যাচ দেন তিনি। এরপর ভালো খেলতে পারেননি রেজিস চকভাও। সাকিবের বলে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফেরেন তিনি। তারা দু’জনেই কোনো রান করতে পারেননি। এদিকে শফিউল ইসলামের বলে আফিফ হোসেনের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন শেন উইলিয়ামস। ফেরার আগে তিনি করেন দুই রান।

এরপর মাতুমবদজিকে সঙ্গে নিয়ে এগিয়ে যাওয়া চেষ্টা করেন মাসাকাদজা। কিন্তু তার পথ আটকে দাঁড়ান আমিনুল ইসলাম। ব্যক্তিগত ১১ রানের মাথায় নিজের প্রথম ওভারের তৃতীয় বলে মাতুমবদজিকে সাজঘরে ফেরান আমিনুল। এরপর আবার আঘাত হানেন শফিউল ইসলাম। তার বলে স্টাম্প হারিয়ে সাজঘরে হাঁটেন রায়ান বার্ল। এদিকে বেশি দূর এগোতে পারেননি মাসাকাদজাও। আমিনুলের বলে এলবিডব্লিউয়ের শিকার হন তিনি। এগোতে থাকা নেভিল মাদজিভা রান আউটের শিকার হয়ে সাজঘরে ফেরেন। যাওয়ার আগে তিনি করেন ৯ রান। ভালো খেলতে থাকা রিচমন্ড মুতুম্বামিকে শিকারে পরিণত করেন শফিউল ইসলাম। সাজঘরে ফেরার আগে তিনি করেন ৫৪ রান। মুস্তাফিজের বলে ২৭ রান করা কাইল জারভিস সাজঘরে ফেরেন ক্যাচ দিয়ে। মুস্তাফিজের বল খেলতে পরেননি আইনসলে এনডিলোভুও। দুই রান করে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফেরেন তিনি। শেষ পর্যন্ত ২০ ওভার খেলে সবকটি উইকেট হারিয়ে ১৩৬ রান সংগ্রহ করে জিম্বাবুয়ে। এর ফলে ৩৯ রানে জিতে টাইগাররা।

এর আগে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে টস জিতে বাংলাদেশকে ব্যাট করার আমন্ত্রণ জানায় জিম্বাবুয়ে। ব্যাটিংয়ে নেমে টাইগার দুই ওপেনার শান্ত ও লিটন দাসের জুটি থেকে আসে ৪ ওভার ৫ বলে ৪৯ রান। যদিও শান্তর ব্যাটে আসে মাত্র ১১ রান। কাইল জার্ভিসের বলে কট এন্ড বোল্ড হয়ে ফেরেন এই অভিষিক্ত।

এরপর ২২ বলে ৩৮ রান করে লিটনও ফেরেন সাজঘরে। সাকিব আসলেন ১০ রান করে ফিরলেন রায়ান বার্লের বলে ক্যাচ দিয়ে।৭ ওভার ২ বলের মাথায় বাংলাদেশের টপ অর্ডার শেষ ৬৫ রানে। এই ধাক্কাটা সামলান মুশফিকুর রহিম ও মাহমুদুল্লাহ। এই দুইয়ের জুটি থেকে আসে ৭৮ রান।

মুশফিক ২৬ বলে ৩২ রানে ফেরার পর মাহমুদুল্লাহ তুলে নেন টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারে চতুর্থ অর্ধশতক। আফিফ হোসাইন তার সহজাত খেলাটা খেলতে পারেননি আজ। মাত্র ৭ রানে কাঁটা পড়েন ক্রিস্টোফার এমপোপোর বলে।

মাহমুদুল্লাহ টিকে থাকেন ১৯ ওভার ৩ বল পর্যন্ত। তার ৪১ বলে ৬২ রানের ইনিংসে ভর করে জিম্বাবুয়েকে ১৭৬ রানের লক্ষ্য ছুড়ে দিয়েছে বাংলাদেশ। জিম্বাবুয়ের হয়ে ৩ উইকেট নেন কাইল জার্ভিস, ২টি উইকেট নেন এমপোপো ও ১টি করে উইকেট নেন রায়ান বার্ল আর মুতমবদজি।

বাংলাদেশের হয়ে ৩ উইকেট নেন শফিউল, ২ উইকেট নেন আমিনুল ইসলাম ও ১টি করে উইকেট নেন সাইফউদ্দিন, সাকিব আল হাসান আর মুস্তাফিজুর রহমান।

ফলাফল: বাংলাদেশ ৩৯ রানের জয়ী।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads