• মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৪ আশ্বিন ১৪২৭
ads

ক্রিকেট

ক্রিকেটারদের ধর্মঘট নিয়ে হতাশা প্রকাশ করলেন পাপন

  • অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশিত ২২ অক্টোবর ২০১৯

১১ দফা দাবিতে ক্রিকেটারদের ধর্মঘট নিয়ে হতাশা প্রকাশ করেছেন বিসিবির সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। এমনকি ধর্মঘটের কথা বিশ্বাসই করতে পারছেন না বলেও জানিয়েছেন তিনি।

এ বিষয়ে আজ মঙ্গলবার বোর্ড সভা শেষে মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামের প্রেস কনফারেন্স কক্ষে সংবাদ সম্মেলন করেছে বিসিবি। সংবাদ সম্মেলনে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন বলেন, টাকার জন্য ক্রিকেটাররা খেলা বন্ধ করে দেবে, এটা ভাবতেও পারছি না।

এছাড়া ক্রিকেটারদের ১১ দফা দাবিতে ডাকা ধর্মঘটের বিষয়টি দেশের ক্রিকেটকে অস্থিতিশীল করার চক্রান্ত বলে মনে করছেন তিনি।

এদিন সংবাদ সম্মেলনে শুরু থেকে ক্রিকেটারদের দাবি-দাওয়ার বিষয়টিকে পূর্বপরিকল্পিত দাবি করেন পাপন। ক্রিকেটারদের ধর্মঘট ডাকার বিষয়টিতে বিস্মিত হয়ে তিনি বলেন, ‘শকিং, আমার বিশ্বাসই হচ্ছে না, আমাদের খেলোয়াড়দের কাছ থেকে এমন কিছু আসতে পারে।’

পাপন বলেন, ওরা চেয়েছে আমি দেই নাই এটা হয়নি। শ্রীলঙ্কা সফর থেকে আসার পরেই সাকিব-তামিম আমাকে বলেছে, ভাই বেতন বাড়ায় দেন। আমি বললাম, তোমাদের বেতন এখন কত? ওরা বললো ৫০ হাজার। আমি পরে বললাম ঠিক আছে চার লাখ করে দিলাম। কী পরিমাণ সুযোগ-সুবিধা ওদের দিচ্ছি, ২৪ কোটি টাকা শুধু ওদের বোনাস দিয়েছি।

তিনি বলেন, ভারত সফর বাতিল করার জন্যই এই যড়যন্ত্র করা হচ্ছে। তবে আমরা ষড়যন্ত্রের নাটের গুরু বের করব।

বিসিবি প্রধান আরও বলেন, এসব দাবি তুলে খেলা বন্ধ করবে তা হতে পারে না। ওরা আমাদের না জানিয়ে, আলোচনা না করেই এসব দাবি তুলেছে। ওরা আমাদের কিছুই জানালো না, কিন্তু মিডিয়াকে জানিয়ে দিল। ওরা জানে ওদের দাবির কথা জানালে আমরা মেনে নেব। এজন্য আমাদের কাছে আসেনি। ওরা আমার ফোন ধরে না, কেটে দেয়। এগুলো সব প্ল্যান। আমরা যেসব কাজ শুরু করেছি সেগুলোই ওরা দাবি করছে। আমি মনে করি ওদের অনেকে জানেই না আসলে আড়ালে কি হচ্ছে।

গতকাল সোমবার ক্রিকেটারদের ১১ দফা দাবি সংবাদ মাধ্যমের বরাদ দিয়ে জানায় ক্রিকেট বোর্ডকে। আর তারই পরিপ্রেক্ষিতে আজ বিসিবি জরুরি সভা ডাকে। দুপুর দুইটা থেকে বিসিবি সভাপতি এবং কর্মকর্তারা আলোচনায় বসেন। এরপর দুপুর ৩টা ১৫ মিনিটে সংবাদ সম্মেলন করেন নাজমুল হাসান পাপন।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads