• শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১ আশ্বিন ১৪২৭
ads
‘ইউনিভার্স বস’ একজনই

ফাইল ছবি

ক্রিকেট

‘ইউনিভার্স বস’ একজনই

  • ক্রীড়া প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ১০ জানুয়ারি ২০২০

সবচেয়ে ছোট ফরম্যাটের ক্রিকেট খেলা টি-টোয়েন্টি মানেই ধুমধাড়াক্কা চার-ছক্কার খেলা। তাই অতি আগ্রাসন নিয়েই খেলতে হয় ক্রিকেটারদের। হালের এ নতুন সংস্করণে নিজেকে প্রমাণও করেছেন অনেকে। কিন্তু ক্রিস গেইলের মতো কেউ নেই। বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ে একাই প্রতিপক্ষকে উড়িয়ে দিয়েছেন বহুবার। তাই নিজেই নিজেকে নাম দিয়েছেন ‘ইউনিভার্স বস’। বাস্তব প্রেক্ষাপটের সঙ্গে মিলে যাওয়ায় এক বাক্যেই সবাই তা মেনেও নিয়েছেন। এবার জানালেন তার পর আর কোনো ‘ইউনিভার্স বস’ আসবে না ক্রিকেট অঙ্গনে।

অথচ বয়সটা ৪০ পেরিয়েছে অনেক আগেই। সমবয়সী অনেক খেলোয়াড় এখন ক্রিকেট ছেড়ে ভিন্ন পেশা ধরেছেন। কিন্তু এখনো তরুণের মতো খেলে চলেছেন গেইল। এবারের বিপিএলেও মধ্যমণি তিনি। ভক্তদের আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দু। অথচ এ সময় নতুন কোনো তরুণে চোখ রাখার কথা ছিল সমর্থকদের। এখনো ভক্তদের আগ্রহের শীর্ষে থাকায় দারুণ উচ্ছ্বসিত গেইল, ‘আর কোনো ক্রিস গেইল কিংবা ইউনিভার্স বস আসবে না। সব সময়ই একজন না একজন আসবে এবং সেই একজন আমার মতো হবে না।’

আর কেন আসবে না তার যুক্তিও উপস্থাপন করেছেন এ ক্যারিবিয়ান, ‘নিজের স্বকীয়তার জন্য আপনাকে অবশ্যই বিশ্বব্যাপী ঘুরতে হবে, নিজের নামটাকে প্রতিষ্ঠিত করতে হবে, সব ধরনের কন্ডিশনে পারফর্ম করতে হবে এবং আমি নিজের ক্ষেত্রে সেটাই কিছুটা ভালোভাবে করতে পেরেছি। আমার আর কিছুই প্রমাণ করার নেই এবং আপনারা জানেন যে ক্রিকেট ক্যারিয়ারে আমি কোন জায়গায় আছি। সুতরাং তারা (নতুনরা) কীভাবে এগোচ্ছে সেদিকে খেয়াল রাখুন। তাদের অধিকাংশই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ক্যারিয়ারের জন্য তেমন সুযোগ পায় না। এ কারণে অনেকেই বিশ্বব্যাপী খেলার সুযোগটা পায় না, যেহেতু তারা অধিকাংশই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলে।’

তবে ইউনিভার্স বস হিসেবে কেউ না আসলেও অনেক তরুণদেরই পরবর্তী সুপারস্টার হিসেবে দেখছেন গেইল। যদিও নির্দিষ্ট কাউকে বেছে নেননি তিনি, ‘বাজারে অনেক নতুন খেলোয়াড়। শুধুমাত্র একজনকে খুঁজে বের করা কঠিন। কোনো কোনো ক্ষেত্রে আপনি সব সময় দেখবেন যে নতুন প্রজন্মের কেউ বেরিয়ে এসেছে। তাদের টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের জৌঁলুসটা এবং নিজেদের নামটা ধরে রাখতে হবে, উত্তরাধিকার হিসেবে নিজেদের গড়ে তুলতে হবে এবং এভাবেই তারা পরবর্তী মহাতারকা হয়ে উঠবে। পৃথিবীটা একটা চক্র এবং আমরা যাওয়া-আসার মধ্যে আছি।’

বিপিএলে সবচেয়ে সফল বিদেশি খেলোয়াড় গেইল। এ আসরের আগে মাত্র ৩৮ ম্যাচে ৪১.৮১ গড়ে করেছেন ১৩৩৮ রান। আসরে সর্বোচ্চ পাঁচটি সেঞ্চুরিও এসেছে তার ব্যাট থেকে। ছক্কা মেরেছেন মোট ১২০টি। শুধু যে বিপিএল নয়, খেলে থাকেন বিশ্বের সব ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে। টি-টোয়েন্টি সংস্করণের সর্বোচ্চ রানের অধিকারীও তিনি। রেকর্ড ২২টি সেঞ্চুরিতে করেছেন মোট ১৩১৭৫ রান। দ্বিতীয় স্থানে থাকা কাইরন পোলার্ড এখন পর্যন্ত এক হাজার রানও করতে পারেননি।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads