• বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯, ২৯ কার্তিক ১৪২৬
ads

ঢালিউড

‘পদ্মার প্রেম’ ছবি নিয়ে আশাবাদী আইরিন

  • বিনোদন প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ০৩ নভেম্বর ২০১৯

তিনি একজন মডেল ও চলচ্চিত্র অভিনেত্রী। ২০০৮ সালের ‘প্যান্টেনা ইউ গট দ্য লুক’ প্রতিযোগিতায় সেরা হাসি পুরস্কার পাওয়ার পর থেকে মিডিয়ায় কর্মজীবন শুরু করেন। দেবাশীষ বিশ্বাস পরিচালিত ‘ভালোবাসা জিন্দাবাদ’ সিনেমার মাধ্যমে ২০১৩ সালে চলচ্চিত্রে পথচলা শুরু হয় তার। বলছি আইরিন সুলতানার কথা।

এরপর আরো কয়েকটি সিনেমা মুক্তি পেয়েছে তার। এর মধ্যে সারা দেশে মুক্তি পেয়েছে তার অভিনীত নতুন ছবি ‘পদ্মার প্রেম’। এ সিনেমাটি এর আগে ভারতের পশ্চিমবঙ্গে মুক্তি পায়। সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন হারুন-উজ-জামান। ঢাকার ‘জোনাকী’, ‘মধুমিতা’, ‘শ্যামলী’, ‘মুক্তি’, ‘আনন্দ’, ‘নিউ মেট্রো’সহ সারা দেশের বিভিন্ন হলে চলবে সিনেমাটি। কলকাতায় ৪২টি হলে মুক্তি পেয়েছিল ছবিটি। এখনো আটটি সিনেমা হলে দেখাচ্ছে ‘পদ্মার প্রেম’।

নতুন ছবি প্রসঙ্গে আইরিন বলেন, ‘দারুণ একটা গল্প বলা হয়েছে এখানে। এটা একটা গল্পনির্ভর একটা ভালো বাংলা ছবি। এখানে আমার চরিত্রটির নাম ‘পদ্মা’। সে চঞ্চল প্রকৃতির মেয়ে। তার গ্রামের মানুষদের সব সময় মাতিয়ে রাখে। সবারে সঙ্গে খুনসুটি করে, সহযোগিতাও করে। গ্রামের মানুষ তাকে ভীষণ ভালোবাসে। এখানে ফ্যামিলি ড্রামাও আছে। যা দর্শকের শেষ পর্যন্ত বসিয়ে রাখবে।’

এই প্রথম সিনেমার নাম ভূমিকাতে অভিনয় করলেন আইরিন। এ তারকা বলেন, ‘এটা অনেক ভালো লাগার ব্যাপার। কোনো সিনেমায় যখন একটা বড় চরিত্রে অভিনয় করার সুযোগ আসে তখন কাজের প্রতি আরো দায়িত্ববোধ বেড়ে যায়। মনে হয় আমাদের ভালো কিছু করতেই হবে। আমি শতভাগ চেষ্টা করেছি ভালো করতে। বাকিটা দর্শক বলবেন।’

‘পদ্মার প্রেম’ ছবির শুটিং করতে গিয়ে বিশেষ ঘটনা রোমন্থন করতে গিয়ে আইরিন বলেন, ‘মানিকগঞ্জে আমরা যখন শুটিং করতে গিয়েছিলাম, পদ্মা নদীতে ডুব দেওয়ার একটা দৃশ্য ছিল। এই দৃশ্যের শুটিং করতে গিয়ে ভীষণ ভয় লাগছি। ডুব দিয়ে যদি না উঠতে পারি! যদিও সাঁতার জানি। আর একটা দৃশ্য ছিল অনেক উঁচু থেকে নদীতে লাফ দেওয়ার। এটাও অনেক রিস্ক ছিল। সাদেক বাচ্চু ভাইয়ার সঙ্গে একটা দৃশ্যে অভিনয় করতে গিয়ে কাঁদতে শুরু করেছিলাম। বাবা-মেয়ের এই দৃশ্যটা এতটাই ইমোশনাল ছিল। কাঁদতে কোনো গ্লিসারিন প্রয়োজন হয়নি।’

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads